গজারিয়ার আধার মানিক গ্রাম পুরুষ শূণ্য

আওয়ামীলীগের কাউন্সিল অধিবেশনকে কেন্দ্র করে দুই গ্র“পের সংঘর্ষ-গুলি বিনিময়ে দলীয় ১০ নেতাকর্মী আহত হওয়ার পর মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার আধার মানিক গ্রাম পুরুষ শুন্য হয়ে পড়েছে। আওয়ামীলীগের বিবদমান দুই চাচাতো ভাই গ্র“পের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা-পাল্টা মামলায় অর্ধশত দলীয় নেতাকর্মীকে আসামি করে মামলা করায় গ্রাম এখন পুরুষ শুন্য হয়ে পড়েছে। গত ১০ মার্চ গজারিয়া উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কাউন্সিল অধিবেশনকে কেন্দ্র করে দলীয় নেতা কর্মীদের বাধা দেয়ায় দুই গ্র“পের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ ও গুলিবিনিময় ঘটনায় কমপে ১০ নেতাকর্মী আহত হয়।

এ সময় উভয় গ্র“পের ৫-৬টি বসত ঘর ভাঙ্গচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষের পরই কাউন্সিল অধিবেশন স্থগিত করা হয়। এ ঘটনায় অর্ধশত দলীয় নেতাকর্মীকে আসামি করে পৃথক তিনটি মামলা হয়েছে গজারিয়া থানায়। এর মধ্যে অস্ত্র আইনে একটি মামলা যার বাদী এস আই হায়দার। এ মামলায় গজারিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেফায়েতউল্লাহসহ ৩ জনকে আসামি করা হয়। বাকি দুটি মামলা হয়েছে দাঙ্গা-হাঙ্গামা আইনের আওতায়। একটি মামলার বাদী খোকা খান। এ মামলায় আসামি করা হয় ১৩জনকে। দ্বিতীয়টির বাদী ইকবাল মল্লিক। এ মামণায় আসামি করা হয় ৬জনকে। মামলার হওয়ার পরপরই আধার মানিক গ্রামের পুরুষরা পুলিশি গ্রেফতারের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। এই ঘটনায় পুলিশ ৩ টি রামদা, ১রাউন্ড গুলি, ২টি হকিস্টিকসহ জুয়েল ও সুমন নামে সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করে। এলাকায় অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply