মেঘনায় লঞ্চ ডুবিতে বর-কনেসহ একই পরিবারের ১২ জন নিখোঁজ

মোজাম্মেল হোসেন সজল, মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জের মেঘনায় লঞ্চ ডুবিতে একই পরিবারের ১২ জন নিখোঁজ রয়েছেন। এরা হচ্ছেন-কামাল হোসেন (৩১), তার স্ত্রী শান্তা বেগম (২১), ভাগ্নে রাকিব, বড় ভাই ফারুক মিয়া, রমজান ও রুবেল, মিনারা, পারভেজ, রিনা. লিটন। এদের কেউই বেঁচে নেই বলে অনেকটা নিশ্চিত হওয়া গেছে। নিহত কামাল মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার আটপাড়া গ্রামের মৃত আমির হোসেনের ছেলে।

নিখোঁজ কামাল বিয়ে শেষে নব বধূ শান্তাকে নিয়ে গ্রামের বাড়ি ফিরছিলেন। কিন্তু লঞ্চ ডুবিতে নববধূকে নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না তার। সম্প্রতি তিনি বিয়ের উদ্দেশ্যে দুবাই থেকে দেশে ফিরেন। নিহত কামালের বড় ভাই মো: নুরুজ্জামান জানান, সোমবার রাত ৯ টার দিকে শুরেশ্বর লঞ্চঘাট থেকে এমভি শরীয়তপুর-১ নামীয় লঞ্চে চড়েন তার ছোট ভাই কামালসহ পরিবারের ১২ সদস্য। ভাগ্য এতোই নিষ্ঠুর যে, তাদের আর জীবিত অবস্থায় বাড়ি ফেরা হয়নি। এদিকে, সোমবার দিবাগত রাত ২ টার দিকে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার উত্তর চরমুশুরা গ্রাম সংলগ্ন মেঘনা নদীতে এমভি শরীয়তপুর-১ নামীয় লঞ্চ ডুবিতে একই পরিবারের এ ১২ জনের সলিল সমাধি হয়েছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এদের মধ্যে মঙ্গলবার বিকেলে বরযাত্রী পারভেজের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বর-কনেসহ বাকী ১১ জনের লাশ রাত পর্যন্ত উদ্ধার করা যায়নি।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply