একের পর এক লাশ ভেসে উঠছে মেঘনায়, উদ্ধারে নেই প্রশাসন

লঞ্চডুবির ঘটনায় উদ্ধার কাজ শেষ হলেও মুন্সীগঞ্জের মেঘনা নদীতে একের পর এক নিখোঁজ যাত্রীদের লাশ ভেসে উঠছে। কিন্তু লাশগুলো উদ্ধারের জন্য ঘটনাস্থলে মুন্সীগঞ্জ প্রশাসনের কেউ নেই বলে জানা গেছে।

বুহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর সোয়া ১টা পর্যন্ত ১৪টি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন। বৃহস্পতিবার উদ্ধার হওয়া ১৪ লাশের মধ্যে চাঁদপুরের মেঘনা থেকে উদ্ধার করা হয় দু’টি।

কিন্তু প্রশাসনের কেউ ঘটনস্থলে না থাকায় উদ্ধার হওয়া লাশগুলো দাফনের জন্য বিআইডব্লিউটিএ এবং ত্রাণ ও খাদ্য মন্ত্রণালয়ের ঘোষিত আট হাজার করে টাকা স্বজনদের দেওয়ার বিষয়টি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, ‘ঘটনাস্থলে পুলিশের একটি দল ছাড়া প্রশাসনের কেউ নেই। তাই কে লাশ দাফনের জন্য সরকারিভাবে বরাদ্দকৃত টাকা স্বজনদের দেবে তা বলতে পারছি না।’

এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক আজিজুল আলম জানান, ‘বিষয়টি এই মাত্র (দুপুর সাড়ে ১২টা) জানতে পেরেছি। এখনই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

উল্লেখ্য, সোমবার রাত ২টার দিকে দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে এমভি শরীয়তপুর-১ নামে একটি লঞ্চ মুন্সীগঞ্জের মেঘনা নদীতে ডুবে যায়।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply