টঙ্গিবাড়ীতে ১ সন্তানের জননীর পরকিয়া প্রেমিকের আত্মহত্যার চেষ্টা

শামীম বেপারী: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার টঙ্গিবাড়ী কাজী আফিসের ছাদের রেলিং হতে পরে আত্মহত্যার চেষ্টা কালে ১ পরকিয়া প্রেমিককে আটক করেছে পুলিশ। জানা গেছে উপজেলার নয়নন্দ গ্রামের শামসূল ছৈয়াল এর মেয়ে সোনিয়া(২২) এর সাথে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার পশ্চিম কাজি কসবা গ্রামের দুবাই প্রবসী আক্তার এর সাথে ৪ বছর আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বৈবাহিক জীবনে তাদের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

বিয়ের ২ বছর পর হতে আক্তার এর ফুফাতো ভাই কাজী কসবা গ্রামের আহম্মদ সেখের ছেলে আল-আমিন (২৮) এর সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পরে সোনিয়া। আল-আমিন ছাড়াও চাদঁপুরের সুজন সহ একাধিক যুবকের সাথে সোনিয়ার সর্ম্পক রয়েছে বলে একাধিক সূত্রে জানা যায়।

এ সমস্ত বিষয়ে জানাজানি হলে, আক্তার দুবাই হতে ফিরে সোনিয়ার সাথে ঘর সংসার নিয়ে ঝগড়া বিবাদ শুরু হয়। সোনিয়া বাধ্য হয়ে এলাকার কতিপয় দূস্কৃতিকারীর সহয়তায় আল-আমিনকে খবর দিয়ে এনে টঙ্গিবাড়ী কাজী অফিসে জোর করে বিয়ে করার চেষ্ট করলে আল-আমিন কাজী অফিসের জানলার পাশের ছাদের রেলিংয়ে গিয়ে পরে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এ সময় আল-আমিনকে ছাদের রেলিং হতে ফিরিয়ে আনার জন্য উপস্থিত অনেকে অনুরোধ করতে থাকলে টঙ্গিবাড়ী বাজারের অসংখ্য মানুষের ভীর জমে যায়।

পরে পুলিশ প্রায় আধ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আল-আমিনকে উদ্ধার করে প্রেমিকা সোনায়া সহ টঙ্গিবাড়ী থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত প্রেমিক যুগল থানায় আটক রয়েছে।

পরকিয়া প্রেমিক আলআমিন এর ছাদের র‌্যালিং হতে পরে আত্মহত্যার চেষ্টা।

Leave a Reply