ধলেশ্বরী থেকে নিখোঁজ যাত্রীর লাশ উদ্ধার

কাজী দীপু: মুন্সীগঞ্জের ধলেশ্বরী নদীতে বল্কহেড ও যাত্রীবাহী ট্রলারের সংঘর্ষে নিখোঁজ যাত্রী শুক্কুর আলী (৪৫) লাশ ২দিন পর সোমবার উদ্ধার হয়েছে। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ধলেশ্বরী নদীর হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকার বেড়িবাঁধ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে তা মৃতের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

শুক্কুর আলীর বাড়ি ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার কাশিপুর গ্রামে।

মুক্তারপুর নৌ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, শনিবার রাত ৮টার দিকে মুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাটের অদূরে ধলেশ্বরী নদীতে বালুবাহী বল্কহেডের সঙ্গে চাঁদপুরের ল্যাংটার মেলাগামী যাত্রীবাহী ট্রলারের সংঘর্ষ হয়। এতে ৫ যাত্রী আহত ও একজন নিখোঁজ হন।

তিনি আরও জানান, ঘটনার দুই দিন পর সোমবার বিকেলে নিখোঁজ যাত্রী শুক্কুর আলীর লাশ ধলেশ্বরী নদীর হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকার বেড়িবাঁধ এলাকায় ভেসে উঠলে স্থানীয়রা পুলিশকে জানায়।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

==============

মুন্সীগঞ্জে নিখোঁজ ট্রলার যাত্রীর লাশ উদ্ধার

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সীগঞ্জ থেকে : মুুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাটের কাছে ধলেশ্বরী নদী থেকে নিখোঁজ ট্রলার যাত্রীর লাশ সোমবার বেলা আড়াইটায় পুলিশ উদ্ধার করেছে। এই যাত্রীর নাম শুক্কুর আলী (৪৮)। সে ঢাকার নবাবগঞ্জের কাসিমপুর মৃত বদর উদ্দিনের পুত্র। তার পুত্র মো. সোহেল অন্যান্য স্বজনদের নিয়ে পিতার লাশ গ্রহণ করেছেন।

মুক্তারপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. মিজানুর রহমান জানান, শতবাধিক যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার লেংটার মেলায় যাওয়ার সময় শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বালুভর্তি বাল্কহেটের ধাক্কায় নদীতে ছিটকে পড়ে ৮ যাত্রী আহত হয় এবং শুক্কুর আলী নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের ৩ দিনের মাথায় লাশ ভেসে উঠে। মো. মিজানুর রহমান জানান, এই ঘটনায় মেসার্স মামুন শিপিং লাইন্স নামের বালুভর্তি বাল্কহেটটি আটক করা হয়েছে। তবে এখনও কোন মামলা হয়নি।

Leave a Reply