মুন্সীগঞ্জে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১০

আওয়ামীলীগ কর্মীদের হামলায় যুবদল কর্মী ফারুক হোসেন (২৮) নিহত হওয়ার জের ধরে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার হোসেন্দী গ্রামে স্বেচ্ছাসেবকদল ও আওয়ামী লীগ কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছে। এ সময় স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীদের ২ টি বসত ঘর ভাংচুর করা হয়। বুধবার রাতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ কর্মী ইসমাইল-ইব্রাহিম ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ-সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মাসুমের গ্র“পের মধ্যে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। মারাত্মক আহত অবস্থায় স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মী ওয়াজ করনী (৫০) ও সুমনকে (২২) ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও ফারুক মিয়াকে (২৩) ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মাসুমের দাবী- যুবদল কর্মীর হত্যাকারী ১৬-১৭ জনের একটি গ্র“প বুধবার রাত সাড়ে ৭ টার দিকে আকস্মিক তার বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় আওয়ামী লীগ কর্মীরা ২টি বসত ঘরে ব্যাপক ভাংচুর ও তান্ডব চালায়।এদিকে,আওয়ামী লীগ কর্মী ইসমাইল ও ইব্রাহিমের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাদের পাওয়া যায়নি। উল্লে­খ্য, ­জমি বিক্রির লেনদেন নিয়ে হোসেন্দী গ্রামে গত রোববার রাতে আওয়ামী লীগ কর্মী মমিনুল হক টিটুর লোকজন একই গ্রামের যুবদল নেতা জাহাঙ্গীর মিয়াসহ দলের অপর নেতাকর্মীদের বাড়ি ঘরে হামলা চালালে ১০ জন আহত ও ৭-৮টি বসত ঘর ভাংচুর করা হয়। পরের দিন ঢাকার পান্থপথের গ্রীন লাইফ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহত যুবদল কর্মী ফারুক হোসেন মারা যায়।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply