পিকেটিং ও মিছিলে পুলিশের বাধা

হরতাল মুন্সীগঞ্জ
মুন্সীগঞ্জ শহরের মানিকপুর, থানারপুল ও মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে জুবলী রোডে হরতালে সাবেক উপমন্ত্রী ও জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল হাইয়ের নেতৃত্বে কয়েক দফায় পিকেটিং ও বিক্ষোভ মিছিল বের করতে গেলে পুলিশি বাঁধায় তা পণ্ড হয়ে গেছে। এ সময় পুলিশ দফায় দফায় বিএনপি নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। তবে, মুন্সীগঞ্জের সর্বত্র বিএনপি আহুত হরতাল আংশিকভাবে পালিত হয়েছে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে। রোববার দিনভর হরতালে সড়ক-মহাসড়ক ছিল পুলিশের দখলে। ভোরে জেলার গজারিয়ায় ঢাকা-চট্টগ্রাম ও শ্রীনগর, লৌহজং ও সিরাজদিখান উপজেলায় ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের নিয়ন্ত্রণ চলে আসে পুলিশের হাতে। কোথাও কোন পিকেটারকে রাজপথে বের হতে দেয়নি পুলিশ। এদিকে, জেলা শহরের ঢাকা-মুন্সীগঞ্জ, ঢাকা-টঙ্গীবাড়ি, লৌহজং-ঢাকা, সিরাজদিখানের ইছাপুরা-ঢাকা ও জেলার শ্রীনগরে ঢাকা-দোহার সড়ক ছিল পুলিশ বেষ্টিত অবস্থায়। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। ঢাকা-মাওয়া ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কোন দূরপাল্লার যানবাহন চলেনি। মাওয়ায় ফেরী-সীবোট ও লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকে। জেলার ৬টি উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের দলীয় পার্টি অফিসে সর্বাতœক পুলিশি পাহারা অবস্থায় থাকে।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

=============

মুন্সীগঞ্জে বিএনপি’র মিছিলে পুলিশের বাধা

কাজী দীপু: হরতালের সমর্থনে মুন্সীগঞ্জে বিএনপি মিছিল পুলিশের বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে। রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের থানারপুস্থ দলীয় কার্যালয় থেকে মিছিল বের করার চেষ্টা চালালে পুলিশ বাধা দেয়।

পরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুল হাই এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে পুলিশের আচরণের তীব্র নিন্দা জানান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রোববার সকালে কয়েক দফা মিছিল করার চেষ্টা চালালে পুলিশ দলীয় নেতাকর্মীদের দলীয় কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে রাখে। এ কারণে নেতাকর্মীরা মিছিল করতে পারেনি।

পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুল হাইয়ের নেতাকর্মীরা হরতালের পক্ষে মিছিল করার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ বাধা দিলে মিছিল পণ্ড হয়ে যায়।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল বাসার জানান, আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে মিছিল করতে দেওয়া হয়নি।

অন্যদিকে হরতালের পক্ষে বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিল করার চেষ্টা চালালেও বিভিন্ন সড়কে যানবাহন চলাচল করছে।

এমনকি দলীয় কার্যালয়ের নিচে আলামিন স্টোর নামের একটি দোকান খোলা রয়েছে। এছাড়া শহরের উত্তরাংশে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও দক্ষিনাংশে খোলা রয়েছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply