হরতালে চালু ছিল দলীয় নেতাদের দেড় শতাধিক কারখানা!

বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত মুন্সীগঞ্জ শহরের উপকণ্ঠ মুক্তারপুর এলাকায় গতকাল রোববার হরতালে খোদ বিএনপি নেতাকর্মীদের কারেন্ট জাল ও সুতা তৈরির কারখানাগুলো সচল ছিল। এ এলাকার শত শত দোকানপাট হরতালে বন্ধ থাকলেও দেড়-শতাধিক কারখানায় দিনভর কারেন্ট জাল ও সুতা উৎপন্ন করা হয়েছে। নিজেদের কারখানা সচল রেখে মুক্তারপুর এলাকায় সকালে হরতাল পালনে পিকেটিং ও বিক্ষোভ মিছিলে নামেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। হরতালের পক্ষে সক্রিয় ভূমিকা নেন সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন। তার নেতৃত্বে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। অথচ সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মহিউদ্দিনের মালিকানাধীন তন্ময় নামের কারেন্ট জাল তৈরির কারখানা দিব্যি সচল রাখা হয়। বিএনপিকর্মী শেখ মোহাম্মদ মালিকানাধীন কারেন্ট জাল ও সুতা তৈরির ৫টি কারখানাই খোলা রাখা হয়।

বিএনপিকর্মী শেখ মোহাম্মদের ছেলে রানা নিজেদের কারখানাসহ দলীয় নেতাকর্মীদের কারখানায় কারেন্ট জাল ও সুতা উৎপন্ন করার কথা অকপটে স্বীকার করেন।

সমকাল

Leave a Reply