আধিপত্য নিয়ে বিরোধের জের ধরে দু’গ্র“পের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

ব.ম শামীম: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুগ্ররুপের সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলার রাজানগর মধুপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, এই গ্রামের যতিন দাসের সঙ্গে একই গ্রামের মনোরঞ্জন দাসের বিরোধ ছিল। আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চলা এ বিরোধের জের ধরে ঘটনার সময় যতিন দাস মধুপুর গ্রামে এলে মনোরঞ্জন দাস ও তার লোকজন তাকে মারধর করে। এ খবর জানাজানি হলে যতিন দাসের লোকজন ঘটনাস্থলে এলে মনোরঞ্জন দাসের লোকজন তাদের ওপর ফের হামলা চালায়। একপর্যায়ে দু’গ্র“পের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রায় এক ঘণ্টা স্থায়ী এ সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক লোক আহত হন। আহতদের মধ্যে বাদল দাসকে (৩৬) আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত নিখিল দাস (৪০), উষা রানী দাস (৫০), রবি রানী দাস (৫২), রাজীব (৩০) অজিত (২০) ও অনিল দাসকে (৫০) ঢাকা মিডফোর্ড হাসপাতালে এবং অন্যদের বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ মাহবুবুর রহমান জানান, ঘটনার ব্যাপারে কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
=======================


সিরাজদিখানে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে দু‘পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকালে উপজেলার মধুপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে বাদল দাসকে (৩৬) আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাবুবুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সিরাজদিখান উপজেলার রাজানগর ইউনিয়ননের মধুপুর বাজারে সকালে যতিন দাস ও মনোরঞ্জনের মধ্যে কথা কাটাকাটির হয়। এর এক পর্যায়ে উভয় গ্রুপ সংঘর্ষে লিপ্ত হলে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ করেনি বলে জানান ওসি।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply