লঞ্চ ডুবিতে কার্গোর মাস্টার ও ড্রাইভার দায়ী : তদন্ত প্রতিবেদন

মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলার চর রমজানটেকের কাছে মেঘনায় লঞ্চ ডুবির জন্য কার্গোর মালিক মাস্টার ও ড্রাইভারকে দায়ী করেছে তদন্ত কমিটি। ওই দুর্ঘটনায় ১৪৭ যাত্রীর প্রাণহানি ঘটে। বৃহস্পতিবার দুপুরে নৌ-পরিবহণ মন্ত্রণালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এ তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন প্রকাশ করেন নৌ পরিবহণমন্ত্রী শাজাহান খান।

তদন্ত প্রতিবেদনে নৌ-দুর্ঘটনা প্রতিরোধে ২৪ দফা সুপারিশ করেছে কমিটি।

নৌ পরিবহনমন্ত্রী বলেন, বিদ্যমান সার্কুলার লঙ্ঘন করে রাতে মালবাহী নৌযান পরিচালনা করা এবং বেপরোয়াভাবে চালানোর কারনেই এ দুর্ঘটনা ঘটছে।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, বিদ্যমান আন্তর্জাতিক মেরিন আইন অনুযায়ী দুর্ঘটনার জন্য দায়ীদের সর্বোচ্চ ৩ বছরের কারাদন্ড ও ৫ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১২ মার্চ রাত প্রায় দেড়টার দিকে যাত্রীবাহী এমভি শরীয়তপুর-১ লঞ্চটি (লঞ্চ নম্বর এম-১০৪২৫) এমভি -১ কার্গো জাহাজের ধাক্কায় মেঘনা নদীতে ডুবে যায়। এ ঘটনায় ১৪৭ জনের প্রাণহানি ঘটে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply