অতিরিক্ত খাজনা আদায়ের প্রতিবাদে ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

মোজাম্মেল হোসেন সজল: মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে অতিরিক্ত খাজনা আদায় ও ইজারাদারের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে ব্যবসায়ীরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা দোহার সড়কে আলামিন বাজারের বিপুল সংখ্যক ব্যবসায়ী, ইউপি সদস্য ও স্থানীয় জনতা একত্রিত হয়ে তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করেন। আলামিন বাজার কমিটির সভাপতি মামুনুর রশীদ জানান, তাদের উপর ইজারাদারের অত্যাচার বন্ধ না হলে ব্যবসায়ীরা তাদের দোকান পাট অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ করে দিবেন। তিনি আরো জানান, এলাকার উন্নয়নের কথা চিন্তা করে তারা বাজারটি মিলিয়েছিলেন। এ বাজারের প্রতিদিন প্রায় ১০ হাজার লোক কেনাবেচা করে।

এখান থেকে প্রতিবছর সরকারকে ৩৬ হাজার টাকা খাস কালেকশন করে দেওয়া হত। এবছর উপজেলা প্রসাশন মাত্র ২৫ হাজার ৫শ’ টাকায় শিলা আক্তারকে বাজারটি ইজারা দেয়। ইউপি সদস্য আ.সামাদ অভিযোগ করেন, শিলা ইজারা নেওয়ার পর থেকে খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ১০ টাকার স্থলে এক থেকে দেড়শ টাকা ইজারা দাবি করে। কোন ব্যাবসায়ী তার দাবি অনুযায়ী ইজারা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে নিজেকে সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী দাবি করে ব্যবসায়ীদের দোকান ভেঙ্গে দিয়ে মিথ্যা মামলায় ফাসানোর হুমকি দেয়। ফলে মাছ, ফল, শাক-সবজিসহ খুচরা ব্যবসায়ীরা এ বাজারে আসা ছেড়ে দিয়েছে।

আব্দুস সালাম নামে এক মাছ বিক্রেতা জানান, তিনি ৫ বছর যাবত নদীর ঘাট থেকে মাছ ক্রয় করে এ বাজারে বিক্রি করতেন। প্রতিদিন ১০ টাকা ইজারা দিতেন । ৩দিন আগে তিনি ৩ হাজার ৫শ’ টাকার মাছ বিক্রি করলে তার কাছে ১৬০ টাকা ইজারা দাবি করা হয়। এ কারণে ২দিন ধরে এবাজারে আসা ছেড়ে দিয়েছেন। বাজারটি পদ্মা তীরবর্তী হওয়ায় চরের বাসিন্দারাও প্রতিদিন তাদের উৎপাদিত কাঁচামাল এখানে বিক্রি করতে আসেন। কিন্তু ইজারা বেড়ে যাওয়ায় তারা এখানে আসা ছেড়ে দিয়েছেন। মার্কেটের ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, নিয়ম বর্হিভূতভাবে তাদের কাছে প্রতিদিন ৫০ টাকা ইজারা দাবি করা হচ্ছে। এব্যাপারে ইজারাদার সায়ন্ত শলা জানান, তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সত্য নয়। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় এমপি মহোদয় অবগত আছেন।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply