শাহ সিমেন্ট ফ্যাক্টরীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

বাঁধার মুখে ফিরে এলো ভ্রাম্যমান আদালত
মোজাম্মেল হোসেন সজল: মুন্সীগঞ্জের উপকণ্ঠ পশ্চিম মুক্তারপুস্থ শাহ সিমেন্ট ফ্যাক্টরীর জেটিসহ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গিয়েও ব্যর্থ হয়েছে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বধীন ভ্রাম্যমান আদালত। শত শত শ্রমিকের বাঁধার মুখে ৬ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়েও অবৈধ স্থাপনার কাছে যেতে পারেননি নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও পুলিশ। বুধবার দুপুর ১২ টার দিকে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল কাদেরের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের একটি টিম ধলেশ্বরী ও শীতলক্ষ্যা নদীর মোহনায় স্থাপিত শাহ সিমেন্ট ফ্যাক্টরীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে যান। এ খবর পেয়ে ফ্যাক্টরীর শ্রমিকরা ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের টিমকে বাঁধা দিয়ে ঘিরে রাখেন। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল কাদের এবং পুলিশের টিম ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসেন। সদর থানার এসআই হুমায়ুন জানান, বাঁধার মুখে দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নদী ও আশপাশ এলাকায় অবস্থান নিয়েও উচ্ছেদ অভিযান চালানো সম্ভব হয়নি। দিনভর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বোঝাপড়া করা হলেও উচ্ছেদ না করেই অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

তিনি আরও জানান, শাহ সিমেন্ট ফ্যাক্টরীর শ্রমিকরা শুধু নদী পথেই বাঁধা দেয়নি। তারা সড়ক পথেও যাতে ভ্রাম্যমান আদালতের টিম অবৈধ স্থাপনার কাছে যেতে না পারে সে জন্য রাস্তাও বন্ধ করে দেয়। মালিক পক্ষের নির্দেশের কারনেই শ্রমিকরা বাঁধা দিয়েছেন বলে মনে করেন এই এস আই। এ প্রসঙ্গে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আব্দুল কাদেরে সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি। মুন্সীগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট এস এম মাহফুজুল হকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে প্রথমে নামাজ পড়ার কথা বলে মুঠোফোন রেখে দিলেও পরে তিনি কল রিসিভ করেননি।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply