সিরাজদিখান ছাত্রদলের দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১২

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় ছাত্রদলের দু’পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় শনিরার সকাল থেকে আবারও ছাত্রদলের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার তালতলা বাজার ও মালখানগর কলেজ রোড এলাকায় কমিটি গঠন নিয়ে ছাত্রদলের দু’পক্ষের মধ্যে দু’দফা ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় ১২ জন আহত হয়।

আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় কোরবান নামে এক ছাত্রদলকর্মীকে ইছাপুরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া শামিম, রাসেল, শ্যামল, শরিফসহ অপর আহতদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। কমিটি গঠন নিয়ে সন্ধ্যায় ছাত্রদলের দু’পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনার পরপরই রাত ৮টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করলেও উত্তেজনা অব্যাহত রয়েছে।

দলীয় সূত্র জানায়, সম্মেলন শেষে মোহাম্মদ রনিকে সভাপতি ও সাখাওয়াত হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক বরে একটি পকেট কমিটি গঠনের চেষ্টা চালায় একটি পক্ষ। অন্যদিকে, সারোয়ার হোসেন সজীব সভাপতি ও সাবিবর মৃধা সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হওয়ার জন্য চেষ্টা চালান।

নেতাকর্মীরা জানান, পকেট কমিটি গঠনে বাধা দেওয়ায় প্রথমে তালতলা বাজারে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় অপর নেতাকর্মীরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করলেও কিছুক্ষণ পরই দু’পক্ষ মালখানগর কলেজ রোড এলাকায় আবারও ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ও সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঘটনার সময় এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ব্যবসায়ীরা দোকানপাট বন্ধ করে ফেলে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) মেহেদী হাসান বাংলানিউজকে জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
=================

Leave a Reply