মঙ্গলবার মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ভাগ্য নির্ধারণ !

মাঝারি শহর উন্নয়ন প্রকল্পের ২৫ কোটি টাকা বরাদ্দ পেতে
মাঝারি শহর উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় মুন্সীগঞ্জ পৌরসভায় আগামী অর্থ-বছরের জন্য ২৫ কোটি টাকা বরাদ্ধ পাওয়ার ভাগ্য নির্ধারন হবে মঙ্গলবার। শর্তযুক্ত কোটি কোটি টাকার বরাদ্দ পাওয়া যাবে, নাকি টাকা ফেরত যাবে-তা নির্ধারন হবে পৌরসভার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত টিএলসিসির গুরুত্বপূর্ণ সভায়। মঙ্গলবার সকালে পৌরসভার সভাকক্ষে টিএলসিসির’র সদস্যদের নিয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হবে। উন্নয়ন সংস্থার উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এতে উপস্থিত থাকবেন। পৌর মেয়র এ সভায় সভাপতিত্ব করবেন। টিএলসিসির সদস্যরা পৌরকর আদায়-অনাদায়ের তথ্য তুলে ধরবেন। ইউজিপ-টু প্রকল্পের আওতায় ২৫ কোটি টাকা বরাদ্ধ পেলে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভা মাঝারি শহর উন্নয়ন প্রকল্পের তৃতীয় ধাপে উপনীত হতে সক্ষম হবে। বরাদ্ধ নিতে ব্যর্থ হলে এ ২৫ কোটি টাকা ফিরে যাবে। আর তা বরাদ্ধ পেয়ে যাবে অন্য কোন পৌরসভা। এ কোটি টাকা বরাদ্ধ পেতে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভাকে উন্নয়ন সংস্থার কর্মকর্তারা “পৌর এলাকার বয়েকা সব হোল্ডিং কর আদায় করে দেখানোর” শর্ত দিয়েছিল। শর্তটি পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে দেওয়া হয় দু’মাস আগে। শর্ত মোতাবেক পৌর এলাকার ৮০ শতাংশ বকেয়া হোল্ডিং কর আদায় করা গেলেও এ ২৫ কোটি টাকা বরাদ্ধ দেওয়া হবে।

পৌরসভা কর্তৃপক্ষ জানায়, চলতি অর্থ-বছরে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছে ৭৫ লাখ টাকা হোল্ডিং কর বকেয়া রয়েছে। এর সিংহভাগ বকেয়া রয়েছে সরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে পৌর কর বকেয়া রয়েছে ৬০ লাখ টাকা। এর মধ্যে জেলা শিল্পকলা, টিচার্স ট্রেনিং ইনষ্টিটিউশন, জেলা প্রশাসক, গনপূর্ত বিভাগ, জেলা ষ্টেডিয়াম, সিভিল সার্জন কার্যালয়, জেলা ক্রীড়া সংস্থাসহ সরকারি ২৫টি প্রতিষ্ঠানের কাছে অধিকাংশ পৌরকর বকেয়া পড়ে আছে। গতকাল সোমবার সর্বশেষ তথ্য মতে, ৬০ শতাংশ পৌরকর আদায় করা সম্ভব হয়েছে বলে জানা গেছে। কাজেই ২৫ কোটি টাকা বরাদ্ধের বিষয়টি সভায় আটকে রয়েছে। এ সভায় নির্ধারন হবে-মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার এ যাবত সবচেয়ে বেশী টাকা বরাদ্দ হবে, কি হবে না। এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র একে এম ইরাদত মানু বলেন- ২৫ কোটি টাকা বরাদ্ধ পেতে শর্তের অধিকাংশই পুরন করা হয়েছে। আমরা বেশ আশাবাদী বিশাল অংকের এ টাকা বরাদ্ধ পাওয়ার ক্ষেত্রে। উন্নয়ন সংস্থার দেওয়া শর্ত পুরোটই পুরণ করা হবে। আগামী অর্থ-বছর শুরুর আগেই শর্ত মোতাবেক বকেয়া হোল্ডিং কর শতভাগ আদায় করা যাবে।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply