সিরাজদিখানে বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় দুটি বস্তায়বন্দি অজ্ঞাতনামা এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার উপজেলার খারসুর ভাঙ্গা নামক স্থানে ঢাকা-নবাবগঞ্জ সড়কের পাশে একটি জঙ্গল থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

সিরাজদিখান থানার ওসি মাহবুবুর রহমান জানান, একটি বস্তায় মাথা এবং আরেক বস্তায় দেহের বাকি অংশ ছিল। বস্তা থেকে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়।

পরে দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহতের পরিচয় পাওয়া যায়নি জানিয়ে ওসি বলেন, ধারণা করা হচ্ছে অন্য কোথাও হত্যার পর লাশ গুমের জন্য কয়েকদিন আগে এখানে ফেলে যায় দুবৃর্ত্তরা। এ ব্যাপারে সিরাজদিখান থানায় হত্যা মামলা হয়েছে।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
====================

মুন্সীগঞ্জে অজ্ঞাত পরিচয় যুবকের লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জ উপজেলার সিরাজদিখানের তুলসীখালী এলাকা থেকে অজ্ঞাত পরিচল এক যুবকের (২৬) গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার দুপুর ১২টার দিকে ওই যুবকের বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহাবুবুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে ঢাকা-দোহার সড়কের তুলসীখালী এলাকা থেকে অজ্ঞাত পরিচয় যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ওই যুবককে অন্য কোথাও হত্যার পর ৩ থেকে ৪ দিন আগে বস্তাবন্দি করে ঘাতকরা লাশ এখানে ফেলে রেখে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা একটি মামলা হয়েছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
===============================

মুন্সীগঞ্জে ১১ টুকরো লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জে লাশ গুমের মিছিলে আবারো যোগ হয়েছে হতভাগ্য অজ্ঞাত এক যুবকের ।পৃথক ছয়টি বস্তার ভেতর থেকে ওই যুবকের ১১ টুকরো গলিত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। রোববার সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে ঢাকা-দোহার সড়কের সিরাজদিখান উপজেলার চিত্রকোট ইউনিয়নের মরিচা খাসশুর রাস্তার পাশে একটি ঝোঁপ থেকে এই অজ্ঞাতনামা (২৪) যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।দেহ থেকে মস্তক,হাত-পা বিচ্ছিন্ন করে খুনিরা ১১ টুকরো করে ফেলে।

এলাকাবাসী জানান, রাস্তা দিয়ে হেটে যাওয়ার সময় এক মহিলা লাশের দুর্গন্ধ পেয়ে রক্তাক্ত বস্তা দেখে স্থানীয় মেম্বারকে জানায়। মেম্বাম্বের খবরের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গলিত টুকরো টুকরো লাশ উদ্ধার করে। এর মধ্যে ৫টি ছোট প্লাস্টিকের বস্তার ভেতর ৫ টুকরো ও ১টি বস্তার ভেতর ৬ টুকরো দেহের অংশ পাওয়া যায়। সিরাজদিখান থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাহাবুবুর রহমান জানান,লাশের টুকরোগুলো ৫-৬ দিন আগের হবে। অন্য এলাকায় হত্যা করে লাশ টুকরো টুকরো বস্তায় ভরে খুনিরা এখানে ফেলে রেখে যায় বলে তার ধারণা।এ ঘটনায় শেখর নগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ঁজাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ময়নাতদন্তের জন্য লাশের টুকরোগুলো মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply