পদ্মায় বরযাত্রীর ট্রলারে ডাকাতি, আহত ১৫

মুন্সীগঞ্জের চরাঞ্চলের কালিরচর গ্রাম সংলগ্ন পদ্মা নদীতে বরযাত্রীর ট্রলারে ডাকাতদের হামলায় বর ও নববধূসহ কমপক্ষে ১৫ বরযাত্রী আহত হয়েছেন। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাত দল ১০ ভরি স্বর্নালঙ্কার ও নগদ ৫০ হাজার টাকা লুটে নিয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

আহতদের মধ্যে শফিক (৪২), আহাদ আলী (৩৪), স্বপন (২১) ও আলমগীরকে (৪০) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত লাল মিয়াকে (৫০) পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বাকিদের প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আহত আহাদ আলী বাংলানিউজকে জানান, মুন্সীগঞ্জ সদরের নলবুনিয়া কান্দি গ্রামের বর আবুল কাশেম শরীয়তপুর জেলার এসকান্দার আলীর মেয়ে লাবনী আক্তারকে (১৯) বিয়ে করে নববধূসহ বরযাত্রী নিয়ে নিজ বাড়ি ফিরছিল। ৮০ জন বরযাত্রী বাহী ইঞ্জিনচালিত ট্রলার পদ্মা নদীর কালিরচর গ্রামের কাছে পৌঁছলে একদল ডাকাত অপর একটি ট্রলার নিয়ে হামলা চালায়।

এ সময় ডাকাতরা ট্রলারে হানা দিয়ে প্রথমেই বরযাত্রীদের মারধর শুরু করে| এ সময় ডাকাতরা অস্ত্রের মুখে বরযাত্রীদের জিম্মি করে স্বর্নালঙ্কারসহ নগদ ৫০ হাজার টাকা ও মূল্যবান সামগ্রী লুট করে পালিয়ে যায়।

সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুলতান উদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, এ ঘটনা বরযাত্রীদের পক্ষ থেকে পুলিশকে জানানো হয়নি। তবে এ রকম ঘটনা ঘটেছে কিনা তার খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
=====================

মুন্সীগঞ্জে বরযাত্রীর ট্রলারে ডাকাতি : বর-নববধূসহ আহত ২০

মুন্সীগঞ্জের পদ্মা নদীতে বরযাত্রীর ট্রলারে ডাকাতি হয়েছে। এ সময় ডাকাতদের হামলায় বর-নববধূসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে বর আবুল কাশেম (৩৫), আহাদ আলী (৪০), সুমন (৩০), আলমগীর (৪০), শফিক (৩৫) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গুরুতর আহত লাল মিয়াকে (৪৮) ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। আহত নববধূ রুমা (২০), মাহমুদ (২৮), শাহজাহান (২০), কালু বেপারী (৫০), আমান (৩০), সুজন (২০) ও ফজলু (২৫)সহ অপর আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ডাকাতরা ২০-২৫ ভরি সোনার গহনা, নগদ ৭৫ হাজার টাকা ও ৩০-৪০টি মোবাইল সেট লুটে নেয় বলে ভুক্তভোগিদের দাবি। সোমবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে মুন্সীগঞ্জ সদরের চরাঞ্চল আধারার কালিরচর এলাকার পদ্মা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, মুন্সীগঞ্জ সদরের চরাঞ্চলের নলবুনিয়াকান্দির চান্দু বেপারীর ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী আবুল কাশেম একই উপজেলার নতুন বাংলাবাজার এলাকার রাজ্জাক দেওয়ানের মেয়ে রুমাকে বিয়ে করে বাড়ি ফিরছিলেন। প্রায় ১৫০-১৭৫ জন বরযাত্রী নিয়ে বড় আকারের একটি ইঞ্জিনচালিত নৌকা দিয়ে কালিরচর এলাকার পদ্মা নদীতে পৌঁছলে অপর একটি ট্রলার যোগে এসে একদল ডাকাত বরযাত্রীর ট্রলারে হামলা চালায়। এ সময় ডাকাতরা বর পক্ষের লোকদের আহত করে সোনার গহনা, নগদ টাকা ও মোবাইল সেটসহ মূল্যবান সামগ্রী লুট করে নিয়ে যায় । এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল বাসার বলেন, এ ঘটনাটি শুনেছি। তবে ভুক্তভোগিদের কেউ থানায় আসেনি।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply