লক্ষ্য স্থির না থাকায় দেশের কাক্সিক্ষত উন্নয়ন হচ্ছে না ॥ বি. চৌধুরী

বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট ও সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, সমাজের সর্বস্তরে দুর্নীতি, অদক্ষতা এবং স্থির লক্ষ্য না থাকায় দেশের কাঙ্কিত উন্নয়ন হচ্ছে না। সোমবার নর্থসাউথ (এনএসইউ) বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউট আয়োজিত ‘ভাষা ও জাতীয় উন্নয়ন’ শীর্ষক বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, একটি দেশের জাতীয় উন্নয়ন নির্ভর করে সে দেশের আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক উন্নয়নের ওপর। ‘উন্নয়নের নেতা’কে অবশ্যই একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হতে হবে। যিনি হবেন দেশপ্রেমিক, মেধাবী। যাঁর রয়েছে জনগণের নাড়ির স্পন্দন শোনার ক্ষমতা।

এনএসইউর আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের পরিচালক এম. শাহেদুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় এবং এনএসইউর ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ গ্রহণ করেন।

বি. চৌধুরী বলেন, জ্ঞান ও মেধার সঠিক বিকাশের ওপরই দেশের আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক উন্নয়ন নির্ভর করে। ভাষা, সংস্কৃতি ও উন্নয়ন পরস্পরের ওপর নির্ভরশীল। ভাষা মানুষের হৃদয়, রক্ত, দেশ ও জাতির উন্নয়নের সঙ্গে সম্পর্কিত।

সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, বাংলাদেশে বাংলা, ইংরেজী ও আরবী ভাষা অধিকাংশ মানুষের হৃদয় ছোঁয়া ভাষা। তবে সকল স্তরের উন্নয়নের জন্য বাংলা ভাষার ব্যবহার অপরিহার্য। আর ইংরেজীর প্রয়োজনীয়তা হচ্ছে উচ্চশিক্ষা ও ভৌত উন্নয়নের জন্য এবং আরবীর প্রয়েজনীয়তা হচ্ছে আধ্যাত্মিকতার উন্নয়ন এবং একটি ভাল সমাজ তৈরির মাধ্যমে মহান সৃষ্টিকর্তার নৈকট্য অর্জন।

বাংলাদেশে শিক্ষাব্যবস্থা ব্যাপক বৈষম্যমূলক উল্লেখ করে বি. চৌধুরী বলেন, রাজধানী, শহর এবং পল্লী অঞ্চলে শিক্ষাব্যবস্থার মধ্যে বিস্তর পার্থক্য রয়েছে। একটি দেশের জাতীয় উন্নয়ন নির্ভর করে সে দেশের আর্থ-সামাজিক ও রাজনৈতিক উন্নয়নের ওপর। তিনি একটি দক্ষ আমলাতন্ত্রের ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, জাতীয় উন্নয়নে তাদেরও ভূমিকা রয়েছে। তবে সমাজের সর্বস্তরে দুর্নীতি, অদক্ষতা এবং স্থির লক্ষ্য না থাকায় বাংলাদেশের কাক্সক্ষীত উন্নয়ন হচ্ছে না।

জনকন্ঠ

Leave a Reply