ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৮ জনকে আসামি করে মামলা, সকালে জামিন

ইউপি সদস্য গ্র“প গ্রাম ছাড়া
মোজাম্মেল হোসেন সজল: ইউনিয়ন পরিষদ ও এলাকার প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনায় মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার বজ্রযোগিনী ইউপি চেয়ারম্যান তোতা মিয়া মুন্সীসহ ৮ জনকে আসামি করে রোববার রাতে মামলার করার পর সকালেই তারা আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। সোমবার ইউপি চেয়ারম্যান তোতা মিয়া মুন্সী তার ভাতিজা বাবু মুন্সী, শামীম, ভুবন মুন্সী, খোকন মুন্সী, খোরশেদ মুন্সীসহ ৮ আসামি জামিনে মুক্তি পেয়ে এলাকায় অস্ত্রের মহড়া চালাচ্ছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। দুর্ধর্ষ অস্ত্রবাজ বাবু মুন্সী ও তার বাহিনী এ মহড়া চালাচ্ছে। মামলার বাদী ওই ইউনিয়নের সাত নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আব্দুল আউয়াল শেখকে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

অস্ত্রবাজ বাবু বাহিনীর ফের হামলা ও মহড়ার কারনে ইউপি মেম্বার ও তার পক্ষের লোকজন সোমবার গ্রাম ছাড়া হয়ে পড়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান গ্র“পের হামলায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন ইউপি সদস্য আউয়াল শেখ (৫৫), তার স্ত্রী তাসলিমা বেগম (৪৮) ছেলে লিটন শেখ (৩২) এখন হাসপাতালেই আতঙ্কে রয়েছেন। এদিকে রোববার দিবাগত রাত ১২ টা ৩৫ মিনিটে মামলা (যার নম্বর ১৯) এন্ট্রি হওয়ার পর সোমবার সকালেই চেযারম্যান তোতা মিয়া মুন্সীসহ মামলার ৮ আসামি মুন্সীগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেজ এক নম্বর আমলী আদালত থেকে জামিন নিয়েছেন বলে চেয়ারম্যান জানিয়েছেন। এছাড়া সোমবার সকালে মুন্সীগঞ্জ থানায় চেয়ারম্যানের পক্ষে একটি কাউন্টার মামলা (যার নম্বর ২২) হয়েছে। এ মামলার বাদী হয়েছেন চেযারম্যানের ভাই শাহজাহান মুন্সী ওরফে খোকন মুন্সী। এ মামলায় ইউপি সদস্য আউয়াল শেখ তার ছেলে লিটন শেখ, আমির হাওলাদার ও হানিফ রাঢ়ীকে আসামি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য- ইউনিয়ন পরিষদে প্রভাব বিস্তারের লক্ষ্যে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে শনিবার সন্ধ্যার পর ইউপি চেযারম্যানের উপস্থিতিতে তার আতœীয়-স্বজনরা ইউপি সদস্য আউয়াল মিয়া, তার স্ত্রী তাসলিমা বেগম ও ছেলে লিটন শেককে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। এ সময় বাবু বাহিনী কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

Leave a Reply