শ্রীনগরে ভাতিজার স্ত্রীর সাথে আওয়ামী লীগ নেতাকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক

এলাকাবাসীর গনধোলাই
আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে ভাতিজার স্ত্রীসহ আওয়ামী লীগ নেতাকে আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে এলাকাবাসী গনধোলাই দিয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার কেয়টখালী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা বিচারের আশ্বাষ দিয়ে ঐনেতাকে ছাড়িয়ে নেন।

এলাকাবাসী জানায়, শ্রীনগর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আ: রহমান মাষ্টার তার মুন্সীরহাটি গ্রামের সিংগাপুর প্রবাসী ভাতিজা শাহাবুদ্দিনের (৩৫) স্ত্রী দুই সন্তানের জননী আলেয়া (৩০) এর সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তুলে। সম্প্রতি শাহাবুদ্দিন দেশে আসায় রহমান মাষ্টার তাদের অনৈতিক সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য আলেয়াকে দিয়ে তার স্বামীর বিরুদ্ধে কোর্টে পর পর দুটি মামলা করান। এতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বচসা হওয়ায় আলেয়া তার বাবার বাড়ী কেয়টখালী চলে যায়। চাচা শশুর রহমান মাষ্টার প্রায়ই সেখানে যাতায়াত করত। গতকাল ভোরে আলেয়াকে নিয়ে ঢাকায় হোটেলে যাওয়ার সময় ফাঁকা রাস্তায় রিক্সা থেকে তাদের আপত্তিকর অবস্থায় আটক করা হয়। এসময় এলাকাবাসী রহমান মাষ্টারকে গনধোলাই দিয়ে চুল কেটে আলকাতরা দেওয়ার চেষ্টা করলে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা তাকে রক্ষা করেন।

পরে তাকে শ্রীনগর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি আ: মান্নানের জিম্মায় দেওয়া হয়। আ: মান্নান জানান, আগামী মঙ্গলবার সালিশ মিমাংসার দিন নির্ধারন করা হয়েছে।

Leave a Reply