পৌর কাউন্সিলর জাকিরের জামিন মঞ্জুর

অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্রের সন্ধানে মাঠে পুলিশ
মোজাম্মেল হোসেন সজল: আওয়ামীলীগ সমর্থিত দু’গ্র“পের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও গুলি বর্ষণের ঘটনায় সোমবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও শহর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গ্রেফতারকৃত জাকির বেপারীর জামিন মঞ্জুর করেছে আদালত।

এছাড়া পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতার ব্যবহৃত অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারে মাঠে নেমেছে পুলিশ। এর আগে রোববার রাতে শহর আ’লীগের নেতা শহীদুজ্জামান শহীদ বাদী হয়ে পৌর কাউন্সিলর-যুবলীগ নেতা জাকিরসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। তার ব্যবহৃত থ্রি নট থ্রি রাইফেলের গুলি উদ্ধার করা হলেও রাইফেলটির সন্ধানে সদর থানার এসআই নজরুল ইসলাম সংশ্লি­ষ্ট থানায় একটি জিডি এন্ট্রি করেছেন রোববার রাতেই। ওই জিডির সূত্র ধরে সোমবার সারাদিন পৌর কাউন্সিলরের অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্রের সন্ধানে তদন্ত কার্যক্রমে মাঠে ছিল পুলিশের টিম। এসআই নজরুল ইসলাম সোমবার রাতে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এদিকে, ড্রেজারের শ্রমিক কবির হোসেনকে মারধর, গুলি বর্ষণ ও আ’লীগের ১৫ নেতাকর্মী আহত হলেও ড্রেজারের পাইপ ও মোবাইল চুরির অভিযোগ দেখিয়ে গ্রেফতার করা পৌর কাউন্সিলর ও যুবলীগ নেতা জাকির বেপারীকে সোমবার বেলা ১১ টার দিকে মুন্সীগঞ্জের জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে পাঠায় পুলিশ। এতে দুপুর ২ টার দিকে আদালত তার জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, শহরের কাছে যোগনীঘাট এলাকায় রোববার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে শহর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারী ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান জেলা শাখার সভাপতি রেজাউল ইসলাম সংগ্রামের দু’গ্র“পের মধ্যে ধাওয়া-ধাওয়ি ও গুলি বর্ষণে ১৫ নেতাকর্মী আহত হয়। পরে যোগনীঘাট এলাকার নিকট আত্মীয় বেয়াইন রাশিদা বেগমের বসতঘরে পলায়ন অবস্থায় পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারীকে গ্রেফতার ও থ্রি নট থ্রি রাইফেলের ১ রাউন্ড গুলি, ৩টি ধারালো রামদা উদ্ধার করে পুলিশ। ওই বসত ঘরে ২ ঘন্টার রুদ্ধশ্বাস অভিযানেও তার ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারে ব্যর্থ হয় পুলিশের টিম।

বাংলা ২৪ বিডি নিউজ

=======================

আ’লীগ নেতা গ্রেফতারকৃত পৌর কাউন্সিলরের জামিন লাভ

শেখ মো.রতন: ড্রেজারে বালু ভরাটকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জ শহরের যোগনীঘাট এলাকায় গুলিবর্ষনের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া শহর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারী আদালত থেকে জামিন পেয়েছেন। সোমবার দুপুরে সদর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে জামিনের আবেদন করলে বিচারক তা মঞ্জুর করেন। রোববার মধ্য রাতে শহর আ’লীগের যুগ্ন সম্পাদক শহীদুজ্জামান শহীদ বাদী হয়ে পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারীসহ ৬ জনকে আসামী করে সদর থানায় মামলা রুজু করেন। ওই মামলা পুলিশ তাকে সোমবার আদালতে প্রেরন করেছিল।

অন্যদিকে যে বসতঘর থেকে পৌর কাউন্সিলরকে গ্রেফতার করা হয় সেখানে তল্লাসী চালিয়ে থ্রি নট থ্রি রাইফেলের ১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করলেও অস্ত্র উদ্ধারের লক্ষ্যে রিমান্ডের আবেদন করেনি পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই নজরুল জানান, বসতঘর থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় গুলি ও রাম দা উদ্ধার হওয়ায় রিমান্ডেরও আবেদন করেনি পুলিশ। এদিকে মুন্সীগঞ্জ শহরের যোগনীঘাট এলাকার রাশিদা বেগমের বসতঘর থেকে রোববার রাতে উদ্ধার হওয়া থ্রি নট থ্রি রাইফেলের গুলি ও ধারালো রাম দা উদ্ধারের ঘটনায় সদর থানায় জিডি রুজু করা হয়েছে। এস আই নজরুল বাদী হয়ে সদর থানায় এ জিডি করেছেন। অন্যদিকে গুলি ও রাম দা উদ্ধারের আগে একই বসতঘর থেকে শহর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারীকে গ্রেফতার করা হলেও জিডিতে জিডিতে উদ্ধার করা গুলি ও ধারালো অস্ত্র পরিত্যক্ত দেখানো হয়েছে।

সদর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) নজুরুল ইসলাম জানান, দায়ের করা জিডির তদন্ত চলছে। তদন্তে উদ্ধার হওয়া গুলি ও ধারালো অস্ত্র পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারীর প্রমানিত হলে তাকে আইনের আওতায় নেওয়া হবে।
উল্লেখ্য, রোববার বিকেলে মামলার বাদী শহর আ’লীগের যুগ্ন সম্পাদক শহীদউজ্জামান শহীদ ও তার লোকজন শহরের যোগনীঘাট এলাকায় গেলে যুবলীগ নেতা ও পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারী গুলিবর্ষন করে। এতে অল্পের জন্য রক্ষা পায় আ’লীগ নেতা শহীদুজ্জামান শহীদ।

এ সময় দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গুলিবর্ষনের ঘটনায় ১৫ জন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে গেলে পৌর কাউন্সিলরের অস্ত্রধারীরা ক্যাডাররা পালিয়ে যায়। কিন্তু পৌর কাউন্সিলর জাকির বেপারী আগ্নেয়াস্ত্রসহ তার আতœীয় রাশিদা বেগমের বসতঘরে আতœগোপন করে।

এতে পুলিশ বসতঘরে গিয়ে জাকির বেপারীকে গ্রেফতার ও রাতে ওই বসতঘরে তল্লাসী চালায়। এ সময় বসতঘর থেকে ১টি থ্রি নট থ্রি’র গুলি উদ্ধার করলেও অস্ত্র উদ্ধারে ব্যর্থ হয় পুলিশ।

টাইমস্ আই বেঙ্গলী

Leave a Reply