অভিনব কায়দায় যাত্রীদের নিকট থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়

মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে এবার অভিনব কায়দায় সিবোট যাত্রীদের নিকট থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রশাসনের করা নজর দারির কারণে স্পিডবোট কাউন্টার থেকে অতিরিক্ত ভাড়া না নিতে পারলেও যাত্রীরা অতিরিক্ত ভাড়া না দিয়ে পদ্মা পারি দিতে পারছেনা। পদ্মা পারি দিতে এখন স্পিডবোট যাত্রীদের অতিরিক্ত ৫০ থেকে ৭০ টাকা ভাড়া দিতে বাধ্য হচ্ছে। নতুবা মাঝ পদ্মায় নানাভাবে যাত্রীদের জিম্মি করা হচ্ছে। যতক্ষণ যাত্রীরা অতিরিক্ত টাকা না দিচ্ছে, ততক্ষণ বোট চালাচ্ছে না। যাত্রীরা চালকের সাথে কিছুক্ষণ কথা কাটাকাটি আর চেচামেচি করে অগ্যতা অতিরিক্ত ভাড়া দিয়েই নদী পার হচ্ছে। আর এসব করতে গিয়েই শুক্রবার দু’টি স্পিডবোট লঞ্চের সাথে ধাক্কা খায়।

এ ব্যাপারে লৌহজং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতার কথা স্বীকার করে বলেন, এ রকম একটি অভিযোগ আমাদের কাছে এসেছে। প্রশাসনের তরিৎ হস্তক্ষেপে তা বন্ধ হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। তাছাড়া কাল হতে কোস্টগার্ড সদস্যদের নদীতে নামানো হচ্ছে বলে তিনি নিশ্চিত করে বলেছেন, মাওয়া ঘাটে বিপুল সংখ্যক আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনের কড়া নজর দারিতে এখানে কোন প্রকার অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করতে দেয়া হচ্ছেনা। তবে মাঝ পদ্মায় আবারও এমন ঘটনা ঘটে থাকলে অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মুন্সীগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply