নেশাগ্রস্থ ছোট ভাইয়ের হামলায় পটচিত্র শিল্পী সম্ভু আচার্য্য লাঞ্ছিত

স্ত্রী-মেয়ে আহত
মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মীরকাদিম পৌরসভার কালিঞ্চিপাড়া এলাকায় বুধবার সকালে নেশাগ্রস্থ ছোট ভাইয়ের হামলায় উপমহাদেশের প্রখ্যাত পটচিত্র শিল্পী সম্ভু আচার্য্য লাঞ্ছিত ও তার স্ত্রী-মেয়ে আহত হয়েছেন। সকাল ১০ টার দিকে সামান্য কথা কাটাকাটিকে কেন্দ্র করে এ ঘটনার সূত্রপাত হয়। এ ঘটনায় সাংবাদিকদের সামনে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন পটচিত্র শিল্পী সম্ভু আচার্য্য। সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ মো: আবুল বাসার জানান, পারিবারিক বিরোধ নিয়ে সকালে আপন ছোট ভাই রবিন্দ্র আচার্য্য ও পটশিল্পী সম্ভু আচার্য্যরে মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

এ সময় ছোট ভাই রবীন্দ্র পটশিল্পীকে টেনে-হেচড়ে বসত ঘর থেকে বাইরে নিয়ে আসে। এ দৃশ্য দেখে স্ত্রী পপি আচার্য্য ও মেয়ে সেতু আচার্য্য বাঁধা দিতে গেলে তাদের মারধর করা হয়। পুলিশ জানায়, পটশিল্পীর ছোট ভাই একজন নেশাগ্রস্থ যুবক। নেশার ঘোরে সে বড় ভাই উপ-মহাদেশের প্রখ্যাত পটচিত্র শিল্পীর শরীরে হাত তুলে শারিরিক ভাবে লাঞ্ছিত করে। এছাড়া শিল্পীর স্ত্রী ও মেয়েকে মারধর করে।

এ ঘটনায় হাতীমারা ফাঁড়ি পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পটশিল্পীর ছোট ভাই রবীন্দ্র পালিয়ে যায়।

টাইমস্ আই বেঙ্গলী

One Response

Write a Comment»
  1. কালিন্দিপাড়ার বাসিন্দা হিসেবে জানি, শম্ভু তার ভাইকে বাবার বাড়ীর সম্পদের ভাগ দিতে চায় না। তার ভাই রবিও একজন শিল্পী মানুষ, একজন তবলা বাদক। আগে নেশাগ্রস্ত ছিল বটে, প্রতিবন্ধী ছেলের জন্য তা ছেড়ে সুস্থ জীবন যাপন করছেন। রবি একটা গাছ লাগাতে চেয়েছিলেন কিন্তু শম্ভু তাতে বাধা দিলে এই ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। মারামারি হয়েছে এমনটা কেউ জানেন না গ্রামের মানুষ। আসল সত্যটা একটু জানাবেন সাংবাদিক সাহেব… ধন্যবাদ

Leave a Reply