গজারিয়ায় শিশু কন্যাসহ মায়ের নদীতে ঝাপ!

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা সেতু থেকে শিশু কন্যা রূপাকে (৩) নিয়ে মা নাসিমা আক্তার (২৫) নদীতে ঝাপ দিয়েছেন। মেঘনা সেতু সংস্কার কাজে থাকা সেনাবাহিনী সদস্যরা বিষয়টি লক্ষ্য করে তাৎক্ষনিত তাদের উদ্ধার করে। শ্বশুর বাড়ির অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে এই মা তার একমাত্র সন্তান নিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় বলে পুলিশ জানান।

গজারিয়া থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, গজারিয়া উপজেলার জমালদি গ্রামের শ্বশুরালয়ে ননদের সাথে ঝগড়া করে প্রায় এক কিলোমিটার দুরের মেঘনা সেতুতে এসে আকস্মিক নদীতে ঝাপ দেয় গৃহবধু নাসিমা । এই গৃহবধুর ¯^vgx সৌদি প্রবাসী ¯^vgx নরুল আমিন। পরে পুলিশ নাসিমাকে শিশু সন্তানসহ বড় ভাই শামসু সরকারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। নাসিমা এখন বাবার বাড়ি নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও রয়েছে। এর আগে নাসিমা আক্তার জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। শিশু সন্তানসহ নাসিমাকে সোনারগাঁও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply