শিল্পপতি আসমতউল্লাহ’র মৃত্যু, দুর্ঘটনা না হত্যা?

ট্রেডলিংক ইন্ট্রান্যাশনালের পরিচালক শিল্পপতি হাজী আসমত উল্লাহর (৩৫) মৃত্যু নিয়ে নানা প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে। ঢাকার কলাবাগানের শ্বশুরালয়ের বথারুমে শুক্রবার দুপুরে অগ্নিদগ্ধ হন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ণইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার বিকালে তিনি মারা যান।

ময়না তদন্ত শেষে মুন্সীগঞ্জের মিরাপাড়া ঈদগাঁহ মাঠে জানাজা শেষে রবিবার সন্ধ্যায় সামাজিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এতে স্থানীয় সংসদ সদস্য এম ইদ্রিস আলীসহ নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। ঘটাও করে একমাত্র পুত্র আজমাঈনর দ্বিতীয় জন্মদিন আয়োজনে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় আসেন। শনিবার ২৫শে আগস্ট ছিল পুত্রের জন্ম দিন। কিন্তু সেই সেদিনই চির বিদায় নিলেন। এই কথা বলতেই আবেগাপ্লুত হয়ে তাঁর বড় ভাই মেট্রোসেম গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও মেট্রোসেম সিমেন্টের মালিক মো. শহিদুল্লাহ রাতে জানান, তার শঙ্কা ভাইয়ের মৃত্যুর পেছনে রহস্য লুকিয়ে রয়েছে। বাথরুমে অগ্নিদগ্ধ হওয়া ঘটনার স্থান পরিদর্শন এবং শশুরবাড়ির লোকজনের আচরণেই তার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।

বাগান থানার ওসি এনামুল হক জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে এটি দুর্ঘটনা নয়, হত্যা ! এই নিয়ে মামলার প্রক্রিয়া চলছে। এদিকে তরুন এই শিল্পপতির এমন মৃত্যুতে মুন্সীগঞ্জের ছায়া নেমে আসে।

মুন্সীগঞ্জ নিউজ

Leave a Reply