টঙ্গীবাড়ীতে সরকারী জমিত বহুতল ভবন নির্মান জমির মালিকানা দাবীকারির দলিল দাখিলের নির্ধারিত দিন শেষ

ব.ম শামীম: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার ধামারন গ্রামে সরকারী জমির উপর বহুতল ভবন নির্মান কাজের জমির মালিকানা দাবীকারি মোতালেব সেখের দলিল দাখিলের নির্ধারিত দিন গতকাল বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে। এর আগে জমির মালিকানা দাবীকারী মোতালেব সেখ কাগজপত্র দাখিলের জন্য টঙ্গীবাড়ী সহকারী কমিশনার ভূমি অফিসের কাছে ৩০ দিন সময় চাইলে তাকে উক্ত ১৪ দিন সময় দেয় এ্যাসিল্যান্ড মনিরা হক।

১০ই সেপ্টেম্বর রোববার সরকারী জমির উপর বহুতল ভবন নির্মান কাজ বন্ধের আদেশ দিযেছিলো টঙ্গীবাড়ী ভুমি অফিসের সার্ভেয়ার নজরুল ইসলাম। ধামারন মৌজার এস এ ৬০৭ নং দাগের ২০ শতাংশ সরকারি জমির ওপর এই বহুতল ভবন নির্মান করা হচ্ছিল। প্রকৃত লিজ গ্রহীতাকে জোরপূর্বক উচ্ছেদ করে ভূমি অফিসের অনুমতি ছাড়াই সরকারি জমির ওপর ইতিমধ্যে ভবনের দ্বিতীয় তলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করেছেন।


একই গ্রামের হেলালউদ্দিন মোল্লা সরকারিভাবে লিজ নিয়ে উক্ত জমি ১৯৮৭ সালে থেকে ভোগ দখল করে আসছিলেন। কিন্তু এলাকার প্রভাবশালী কতিপয় ব্যক্তি হেলালউদ্দিন মোল্লাকে ওই জমি হতে জোরপূর্বক উচ্ছেদ করে দখল নিয়ে স্থানীয় প্রভাবশালী মেম্বার মোতলেব শেখ-এর কাছে বিক্রি করে দেয়।

ওই মেম্বার কোন নিয়ম নীতির তোয়ক্কা না করে সরকারি অনুমতি না নিয়ে বহুতল ভবন নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এ ব্যাপারে টঙ্গীবাড়ী সহকারী কমিশানার ভুমি মনিরা হক জানান, উক্ত সম্পত্তির মালিকানা সংক্রান্ত কাগজ পত্র এখোনো দাখিল হয়নি। আমরা আগামী সপ্তাহে এ ব্যাপারে ব্যাবস্থা নিবে।

বাংলাপোষ্ট

Leave a Reply