খোকার অনিয়মের প্রমাণ পেয়েছে সংসদীয় কমিটি

মার্কেট নির্মাণ
বিএনপি নেতা ও সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার আমলে ঢাকা সিটি করপোরেশনের (ডিসিসি) মার্কেট নির্মাণে অনিয়ম খুঁজে পেয়েছে সংসদীয় কমিটি। বেসরকারি বিনিয়োগে কয়েকটি মার্কেট নির্মাণে প্রাথমিকভাবে এই অনিয়ম খুঁজে পায় স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। এসব মার্কেট নির্মাণে চুক্তিবদ্ধ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে বেশি অংশীদারিত্ব দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে ডিসিসির দোকান ও পার্কিং নির্মাণ বিষয়ক একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। ওই প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, মেয়র খোকার আমলে বেসরকারি বিনিয়োগে ৮টি গাড়ি পার্কিং কাম বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণ করা হয়।


এর মধ্যে ৫টি মার্কেট নির্মাণে ডিসিসির সঙ্গে চুক্তিপত্র স্বাক্ষরিত হয় বোরাক রিয়েল এস্টেটের সঙ্গে বনানী সুপার মার্কেট কাম হাউজিং কমপ্লেঙ্ নির্মাণ প্রকল্প, আমিন অ্যাসোসিয়েটস ওভারসিজের সঙ্গে গুলাশান-১ এ আধুনিক কমার্শিয়াল কমপ্লেঙ্ প্রকল্প, ইউনাইটেড সিটি টুইন টাওয়ার ডেভেলপারসের সঙ্গে গুলশান-২ এ আধুনিক কমার্শিয়াল কমপ্লেঙ্ প্রকল্প, এম আর ট্রেডিং কোম্পানির সঙ্গে রায়ের বাজার ডিসিসি কমার্শিয়াল কাম অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেঙ্ নির্মাণ প্রকল্প ও মোহাম্মদপুর টাউন হল কমপ্লেঙ্ নির্মাণ প্রকল্প। ওই প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, বোরাক রিয়েল এস্টেটের সঙ্গে চুক্তি হওয়া প্রকল্পে ডিসিসির অংশীদারিত্ব ৩০ শতাংশ। বাকি ৭০ শতাংশ বোরাক রিয়েল এস্টেটের। একইভাবে অন্যগুলোর ক্ষেত্রেও ডিসিসির অংশীদারিত্ব ২৫ থেকে ৩০ শতাংশের মধ্যে।


শুধু গুলাশান-১ এ আধুনিক কমার্শিয়াল কমপ্লেঙ্ প্রকল্পে ডিসিসির অংশ ৩৭ শতাংশ। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, বনানী সুপার মার্কেট কাম হাউজিং কমপ্লেঙ্রে ১৪ তলা পর্যন্ত নির্মাণের জন্য বোরাকের সঙ্গে চুক্তি হয়। পরে বোরাক ৩০ তলা পর্যন্ত নির্মাণের প্রস্তাব দেয়। তবে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় এ প্রস্তাবে অনুমোদন না দিলেও নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে সাদেক হোসেন খোকার আমলে ডিসিসির গাড়ি পার্কিং, মার্কেট নির্মাণ ও দোকান বরাদ্দের অনিয়ম তদন্ত করতে একটি সংসদীয় উপকমিটিও গঠন করা হয়েছে। স্থায়ী কমিটির সদস্য হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটনকে আহ্বায়ক করে চার সদস্যের এ উপকমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, একেএম মোস্তাফিজুর রহমান, আশরাফ আলী খান খসরু, মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও বিএনপির এমপি আবুল খায়ের ভূঁইয়া। আসন্ন ঈদের পরই ডিসিসির গাড়ি পার্কিং, মার্কেট নির্মাণ ও দোকান বরাদ্দের অনিয়ম তদন্ত শুরু করতে যাচ্ছে সংসদীয় উপকমিটি।

বাংলাদেশ প্রতিদিন

Leave a Reply