সিরাজদিখানে ঈদ আনন্দ মেলায় হাজারো লোকের ঢল

সিরাজদিখানের উচ্চবিদ্যালয় ও ডিগ্রী কলেজ মাঠে ৩ দিন ব্যাপী ঈদ আনন্দ মেলায় হাজারো লোকের ঢল নেমেছে। শিশু-কিশোর যুবক-যুবতি ও বয়ো বৃদ্ধ সকলেই মেলা উপভোগ করতে আসেন। দুরদুরান্ত থেকে আসা হাজারো লোকের সমাগমে মেলা সার্থক হয়ে ওঠে। মেলাটি পরিচালনা করছেন সিরাজদিখানের অরাজনৈতিক একটি সামাজিক সংগঠন ‘ফ্রেন্ডস এসোসিয়েশন অব মালখানগর’; প্রতি বছর ঈদের পরদিন থেকে ৩ দিন ব্যাপী এই মেলা তারা করে থাকে।


মেলার ২য় দিন, সোমবার বিকাল ৪টা থেকে রাত ১২ টা পর্যন্ত মেলা চলে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ট আইনজীবী শেখ মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন, শিল্পপতি আলহাজ্ব মোঃ কলিম উল্ল‌াহ। আলোচনা ও সংবর্ধনা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ব্যান্ড শো পরিবেশনা করে ঝিলিক বাবু ও মুন্নি।

রোববার মেলার ১ম দিনে প্রধান অতিথি ও উদ্বোধক হিসেবে উপিস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ। মেলা কমিটি অবসরে যাওয়া ৬ জন শিক্ষককে সন্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করে। এদের মধ্যে শিক্ষায় বিশেষ অবদান রাখায় শিক্ষক বাবু বিনয় কুমারকে বিশেষ সন্মাননা দেওয়া হয়। ৫ জন ক্রীড়ানুরাগি আনু, হারুন, নিমাই, ইরান ও রতন কে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

এবার স্কুল ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় মালখানগর উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী দৃষ্টি আক্তার উচ্চ লম্ফ ও দীর্ঘ লম্ফে জেলায় চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় তাকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সেরা নাট্যকার হিসেবে সুবল দাস ও সেরা নাট্যাভিনেতা হিসেবে মনির মৃধাকে ক্রেস্ট দেওয়া হয়। এরপর লালন সংগীত পরিবেশনা করে কুষ্টিয়ার আর্শীনগর শিল্পীগোষ্টি। রাত ১২টায় অনুষ্ঠানের সভাপতি আশরাফুজ্জামান সোহেল অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।


মঙ্গলবার অনুষ্ঠানের শেষ দিনে প্রধান অতিথি হিসেব উপস্থিত থাকবেন, মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য সুকুমার রঞ্জন ঘোষ। আলোচনা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে রাত ৯ টায় শুরু হবে লাকী কূপন ড্র যার ১ম পুরস্কার ৩২ইঞ্চি এলসিডি মনিটর। পুরস্কার বিতরন শেষে শুরু হবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ব্যান্ড শো। পরিবেশনায় থাকবেন পলাশ, রিজিয়া পারভিন ও মৌসুমী।

বাংলাপোষ্ট২৪ : সেলিনা ইসলাম

Leave a Reply