আবাসিক গ্যাস সংকট ভয়াবহ, কাল থমকে দাঁড়াবে মুন্সীগঞ্জ শহর

গ্যাস সংকটে দিশেহারা হয়ে পড়েছে মুন্সীগঞ্জের আবাসিক গ্রাহকরা। গৃহিণীদের রান্নাবান্না এখন বন্ধের পথে। রাত ১০টার পর মাঝে মধ্যে গ্যাস পাওয়া গেলেও ভোর ৫টার আগেই গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। এতে করে গৃহিণীরা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। তাদের অধিকাংশের স্বাস্থ্যহানি দেখা দিয়েছে। জীবন হয়ে উঠছে দুর্বিষহ।

অনেক গৃহিণীকে রাত জেগে রান্নাবান্নার করতে হচ্ছে। গ্যাস না পেয়েও মাসে মাসে গ্রাহকদের বিল পরিশোধ করতে হচ্ছে। আবার গৃহকর্তাদের রান্নাবান্না করতে অতিরিক্ত টাকায় কেরোসিন, কাঠ, লাকড়ি কিনে আনতে হিমশিম পোহাতে হচ্ছে।

এদিকে, এ ঘটনায় নিয়মিত ও নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহের দাবিতে সোমবার সকাল ১০টায় মুন্সীগঞ্জ আবাসিক গ্যাস সংগ্রাম কমিটির ব্যানারে শহরের পুরাতন কাচারি এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি আহ্বান করা হয়েছে। পরে এ কমিটি মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করবেন।

এ সময় গ্যাস গ্রাহক, সচেতন নাগরিক, শহরের দোকান মালিক-কর্মচারী, পথচারীসহ যে যেখানে থাকবেন সেখানেই এ কর্মসূচির প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করে থমকে দাঁড়ানো হবে সকাল ১০টা ১ মিনিটে। মুন্সীগঞ্জ আবাসিক গ্যাস সংগ্রাম কমিটি একটি লিফলেটও বিলি করেছেন শহরে।

সূত্র মতে, মুন্সীগঞ্জের জন্য ৩০ পিএসআই গ্যাস বরাদ্দ রয়েছে। কিন্তু বাস্তবে আবাসিক গ্যাস গ্রাহকরা পাচ্ছেন মাত্র ৫-৬ পিএসআই গ্যাস। এতে করে গ্যাসের চাপ এতো কম থাকে যে, গ্যাসের আগুন আর জ্বলে না। রাতে কিছু গ্যাস আসলেও তখন আর রান্নাবান্না করার সময় থাকে না। আবার অনেকে রাত জেগে রান্নাবান্না করে থাকেন। সকালে ছেলেমেয়েদের স্কুলে পাঠানো ও বাড়ির গৃহকর্তাদের কর্মস্থলে যাওয়ার গুছগাছ করা ও সংসারের অন্যান্য কাজ করার ফলে গৃহিণীদের আর বিশ্রাম নেয়ার সুযোগ হয়ে উঠে না। এতে করে অধিকাংশ ঘরের গৃহিণীদের মারাত্মক স্বাস্থ্যহানি দেখা দিয়েছে।

জাস্ট নিউজ

Leave a Reply