সিরাজদিখানে ফেনসিডিল উদ্ধার ঘটনায় ট্রাক মালিককে খুঁজছে পুলিশ

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানের কুচিয়ামোড়স্থ ধলেশ্বরী সেতুর ঢালে শুক্রবার রাতে ১৪ বস্তা ফেনসিডিলসহ ট্রাক আটক করা হয়। এ ঘটনার পর শনিবার সকাল থেকে ট্রাক মালিককে খুঁজছে পুলিশ। তাকে আটক করা হলেই পাচারকারী মাদক ব্যবসায়ীদের শনাক্ত করা যাবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। ফেনসিডিলের চালানসহ ট্রাক ফেলে চালক ও হেলপার পালিয়ে যাওয়ায় এর সঙ্গে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

শুক্রবার রাতে ফেনসিডিল ভর্তি ট্রাকটি দক্ষিণাঞ্চল থেকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। সেময় ট্রাকটি আটক করা হয়। আটকের পর ট্রাকে তল্লাশি চালিয়ে ১৪টি বস্তার মধ্যে ৩ হাজার ১শ ৩২ বোতল ফেনসিডিল পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় শুক্রবার রাতেই সিরাজদিখান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. জুলহাসউদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাতপরিচয়দের নামে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

হাইওয়ে পুলিশের সার্জেন্ট ওজিয়ার রহমান বাংলানিউজকে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের ষোলঘর এলাকায় ট্রাকটিকে থামতে বললে চালক দ্রুত গতিতে ট্রাক চালাতে থাকে।

এর পর পুলিশ তাদের পিছু নিলে কুচিয়ামোড়স্থ ধলেশ্বরী সেতুর ঢালে মালবোঝাই ট্রাক ফেলে রেখে চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়।

তিনি জানান, এসময় ট্রাকটিতে তল্লাশি চালিয়ে বস্তার ভেতর ফেনসিডিলের সন্ধান পাওয়া যায়।

এর পরই বিষয়টি সিরাজদিখান থানা পুলিশকে জানালে তারা ট্রাক থেকে ১৪ বস্তা ভর্তি ফেনসিডিল উদ্ধার করে।

সার্জেন্ট জানান, দক্ষিণাঞ্চল থেকে ফেনসিডিলের এ বড় চালানটি মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুট হয়ে ঢাকায় পাচার করা হচ্ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহাবুবুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, আটক ট্রাক থেকে ১৪ বস্তায় ৩ হাজার ১শ ৩২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করতে পুলিশ এখন ট্রাক মালিকের খোঁজে মাঠে নেমেছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
======================

সিরাজদিখানে ট্রাকভর্তি ফেনসিডিল উদ্ধার : ট্রাক মালিককে খুঁজছে পুলিশ

জেলার সিরাজদিখানে এক ট্রাক ফেনসিডিল ও ৫০ ড্রাম ভারতীয় কেমিক্যাল উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় ট্রাক মালিককে এখনো আটক করতে পারেনি পুলিশ। তাকে আটক করা গেলেই ফেনসিডিল-কেমিক্যাল পাচারকারী ও মাদক ব্যবসায়ীদের সন্ধান পাওয়া যাবে বলে সিরাজদিখান থানার ওসি মাহবুবুর রহমান জানিয়েছেন। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতেই সিরাজদিখান থানার এসআই মো. জুলহাসউদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের নামে মামলা করেছেন। আটক হওয়া ট্রাক থেকে ১৪টি বস্তার ভেতর ৩ হাজার ১৩২ টি ফেনসিডিল, ৫০ ড্রাম ভারতীয় কেমিক্যাল ও ২ বস্তা সোডা জাতীয় রাসায়নিক পদার্থ পাওয়া গেছে।

পুলিশ জানায়, খুলনা থেকে একটি ট্রাক (সাতক্ষীরা ট-১১-০০৮১) ওই অবৈধ মালামাল নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে ফেরি পার হয়ে শুক্রবার রাতে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়াঘাটে আসে ট্রাকটি। এ সময় শ্রীনগর উপজেলার হাষাড়া হাইওয়ে ফাঁড়ি পুলিশ ট্রাকভর্তি ফেনসিডিল পাচারের গোপন তথ্য নিশ্চিত করে। এতে হাইওয়ে পুলিশের একটি টহলরত টিম গাড়ি যোগে ট্রাকের পিছু ধাওয়া করে। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে ট্রাকটি সিরাজদিখান উপজেলার কুচিয়ামোড়া এলাকাস্থ ধলেশ্বরী-২ নম্বর সেতুর নীচে ট্রাকটি রেখে চালক-হেলপার পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে ওসি জানান, ট্রাকে থাকা রংয়ের ড্রামের ভেতর ওই ফেনসিডিলের বস্তা মজুদ করা হয়। হাজার হাজার বোতল ফেনসিডিল প্রথমে বস্তাবন্দি করা হয়। পরে বস্তাগুলো রংয়ের ড্রামের ভেতর মজুদ করে ট্রাকে উঠানো হয়েছে।

জাস্ট নিউজ

Leave a Reply