কবিতা আবৃত্তি,সঙ্গীত ও পেৌষর পিঠাপুলির এক ব্যতিক্রম অনুষ্ঠান

pressclubkobitaমুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সফিউদ্দিন মিলনায়তনে হয়ে গেলো পেৌষের পিঠাপুলি, কবিতা পাঠের আসর ও সঙ্গীত সন্ধ্যার এক ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠান। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। শুরুতেই এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন,মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শহীদ-ই-হাসান তুহীন, সাধারণ সম্পাদক কাজী সাব্বির আহম্মেদ দীপু।

এর পরে কবিতা আবৃত্তি করেন, কবি ফাহীম ফিরোজ, যাকির সাইদ, সুমন ইসলাম, মুজিব রহমান, কাজী মুহম্মদ আশরাফ, মাসুদ অর্ণব, বেলাল আহম্মেদ, গোলাম আশরাফ খান উজ্জ্বল, আবু সাইদ সোহান, সোনিয়া হাবিব লাবনী, র্নিতেশ সি দত্ত, অনু ইসলাম, অ্যাডভোকেট মনির হোসেন, আনমনা আনোয়ার, শেখ আলী আকবর, মানিক,আতাউর রহমান রানা, সাইফুল্লা ভূইঁয়া, রোকসানা পারভীন। সঙ্গীত পরিবেশন করেন, রাইকা সুলতানা,জয়া,বাবু। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মঞ্জুর মোর্শেদ, আরিফ-উল-ইসলাম, মাহাবুব আলম বাবু, মোজাম্মেল হোসেন সজল, মামুনুর রশীদ খোকা, সাহাদাৎ রানা, মঈনুউদ্দিন সুমন, ভবতুষ নুপুর, সুজন হায়দার জনি, শেখ মো: রতন, পলাশ সরকার, আব্দুল সালাম প্রমূখ।


অনুষ্ঠানে এই প্রথম এক সঙ্গে অনেক কবিদের মিলন মেলা ঘটে। কবি এবং সাংবাদিকদের মিলন মেলার এ ব্যতিক্রম আয়োজনের অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক কাজী দীপু বলেন, মুন্সীগঞ্জ শহরে যারা কবিতা চর্চা করেন তাদেরকে সম্মান দেয়ার মতোন তেমন কিছুই আমরা করতে পারিনি। এ দায় আমরা স্বীকার করে নিচ্ছি কিন্তু তাদের লেখা কবিতা অনেক শক্তিশালী হয়ে উঠেছে তা নির্দ্বিধায় বলা যায়। তিনি আরো বলেন, মুন্সীগঞ্জ শহর এখন কবি এবং কবিতার শহরে পরিণত হয়েছে। এতে আমরা গর্বিত। রাত ১০টা পর্যন্ত চলে কবিতা পাঠ। এর ফাঁকে ফাঁকে চলে গান। অন্যদিকে কবিদের স্বরচিত কবিতা আবৃতি এবং সঙ্গীত পরিবেশন শেষে চলে পেৌষের নান রকমের তৈরী করা পিঠা পুলির খাবারের আয়োজন।

বেস্টনিউজবিডি

Leave a Reply