মাওয়া ফেরিঘাটে জনতার হামলায় ড্রেজিং কাজ বন্ধ

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের মাওয়ায় ১নং ফেরিঘাটে হামলা চালিয়েছে স্থানীয় জনতা। এতে ওই ঘাটের ড্রেজিং কাজ বন্ধ হয়ে যায়। সোমবার বিকেল ৪টার দিকে মাওয়া নতুন ১নং ফেরি ঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ১নং ফেরি ঘাটের নিচু স্থানে বালু ভরাটকালে ড্রেজিংয়ের পানি উপচে আশপাশের দোকানপাট ও বসতঘর প্লাবিত হলে স্থানীয় এ হামলা চালায় বলে জানা গেছে।

এ সময় জনতা বিআইডব্লিউটিএর ড্রেজার শ্রমিকদের মারধর করতে উদ্যত হয় এবং ড্রেজিং কাজের বাধ কেটে ফেলে। এর ফলে ড্রেজিং কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে।


এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, বিআইডব্লিউটিএ কপোতী নামের ড্রেজার দিয়ে গত কয়েক দিন ধরে পদ্মায় পলি অপসারণ করছে।

সোমবার বিকেলের দিকে পলি ও পানি উপচে আশপাশের বাড়ি-ঘর ও দোকানপাট ঢুকে পড়লে বিক্ষুব্ধ হয়ে হামলা চালিয়ে ড্রেজিংয়ের ৩টি বাধঁ কেটে পানি ছেড়ে দেয়। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ শুরু করা হবে বলে জানান তিনি।

ড্রেজিং কাজ সম্পন্ন করা না হলে মাওয়া ঋষিপাড়া ফেরি ঘাট বন্ধ হয়ে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে। ফলে কোনো অবস্থাতেই ড্রেজিং কাজ বন্ধ রাখা যাবেনা বলে বিআইডব্লিউটিএ সূত্রে জানা গেছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply