‘বিএনপি নেত্রীর চোখে রাজনৈতিক অপারেশন দরকার’

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, বর্তমান সরকারের এ ৪ বছরে এতো উন্নয়ন হওয়ার পরও বিএনপি নেত্রী উন্নয়ন চোখে দেখেন না। এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘মানুষের চোখে ছানি পড়লে মানুষ চোখে কম দেখে। বিএনপি নেত্রীর চোখে রাজনৈতিক অপারেশন দরকার, তাহলেই তিনি উন্নয়ন দেখতে পাবেন।’

বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের মেঘনা নদীর তীরে খান ব্রাদার্স শিপ বিন্ডিংয়ের শিপ ইয়ার্ডে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

৩টি ইউটিলিটি টাইপ-১ ফেরির কেল লেয়িং উদ্বোধনী ও ৬টি ওয়েল ট্যাংকার হস্তান্তর উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে খান ব্রাদার্স শিপ বিল্ডিং লিমিটেড।

নৌমন্ত্রী শাজাহান খান এমপি এসময় আরও বলেন, ‘বিএনপি ১৬ বছর ক্ষমতায় থেকে যে উন্নয়ন করেছে, এ ৪ বছরে নৌ মন্ত্রণালয়ে যদি তার চেয়ে ১৬ গুণ বেশি উন্নয়ন না হয়ে থাকে তাহলে মন্ত্রীত্ব ছেড়ে দেব’।


‘বিগত বিএনপিসহ চার দলীয় সরকার দেশের বিদ্যুৎ খাতে কোনো উন্নয়ন করেনি। তারা খাম্বা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাট করে বিদেশে পাচার করেছে। আর শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় আসার পর বিদ্যুতের ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে’-উল্লেখ করেন মন্ত্রী।
তিনি আরও বলেন, ‘১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু ক্ষমতায় আসার পর দেশের নদী পথ খননের জন্য ৭টি ড্রেজার কিনেছিলেন। এরপর আর কোনো সরকার ড্রেজার কেনেনি।’

মন্ত্রী বলেন, ‘এ সরকারের আমলে ১১ হাজার ৪৭৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫৩টি নদী পথ খননের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে ৩৬টি নদীপথ খননের জন্য টাকা দেওয়া হয়েছে।’

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, ‘দেশে রুস্তম ও হামজা নামে দু’টি উদ্ধারকারী জাহাজ থাকলেও তা এখন বয়োবৃদ্ধ হয়ে গেছে। দীর্ঘ ২৮ বছর পরে বর্তমান সরকার নতুন দু’টি উদ্ধারকারী জাহাজ আনছে। জাহাজ দু’টি বর্তমানে কোরিয়ায় নির্মাণাধীন। ফেব্রুয়ারি মাসে তা দেশে আনা হবে। যার প্রতিটির উত্তোলন ক্ষমতা ২৫০ মেট্রিক টন। আর আগের দু’টির ক্ষমতা মাত্র ৬০ মেট্রিক টন।’


অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন-মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য এম ইদ্রিস আলী, বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান, নারায়নগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা) আসনের সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরী, ওয়ান ব্যাংকের চেয়ারম্যান সাঈদ এইচ চৌধুরী।

এছাড়া এ অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন-খান ব্রাদাস শিপ বিল্ডিং লিমিটেডের চেয়ারম্যান এনামুল কবির খান, পরিচালক জাকিরুল কবির খান, করিম গ্রুপের পরিচালক মাসুদ করিম, গজারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিউল্লাহ।

আলোচনা সভা শেষে নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানের উপস্থিতিতে ৩টি ইউটিলিটি টাইপ-১ ফেরির কেল লেয়িং উদ্বোধন ও নির্মিত ৬টি ওয়েল ট্যাঙ্কার হস্তান্তর করা হয়। এর আগে খান ব্রাদাস লিমিটেডের সঙ্গে আব্দুল করিম গ্রুপের একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply