খাদিজা হত্যার ৫দিন অতিবাহিত হলেও ঘাতক শামীম গ্রেফতার হয়নি!

মুন্সীগঞ্জের মেয়ে খাদিজা আক্তার(৩০)কে নৃশংসভাবে হত্যার ৫দিন অতিবাহিত হলেও এখনো এ হত্যাকান্ডের মূল আসামী শামীমকে আটক করতে পারেননি পুলিশ। এদিকে মাকে হারিয়ে স্তব্ধ বোবা হয়ে পড়েছে ৬ মাসের শিশুকন্যা আদিবা।স্বজনদের কলে উঠেও মাকে দেখতে বা কাছে পাচ্ছেনা এই শিশুকন্যাটি। অসহায়ের মতোন একা এতিম হয়ে পড়েছে তার পৃথিবী এখন। গত শুক্রবার ২৫ জানুয়ারী রাতে নারায়ণগঞ্জ বন্দর থানার একরামপুর ইস্পাহানি এলাকায় খাদিজাকে তার স্বামী শামীম ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে নৃশংসভাবে খুন করে। খাদিজার বড় ভাই শহীদুল ইসলাম এ ঘটনার বর্ণনা বলার সময় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।


তিনি জানান, শুক্রবার রাতে শামীম তার স্ত্রী খাদিজাকে ধারালো চাপাতি দিয়ে গলা কেটে নৃশংসভাবে খুন করে। পরে সে শনিবার ভোরে শিশুকন্যা আদিবাকে আমাদের বাড়িতে (মুন্সীগঞ্জ শহরের উপকন্ঠ নয়াগাঁও গ্রামে) এসে রেখে যায়। ওই সময় শামীমকে বাড়ির লোকজনেরা খাদিজার কথা জিজ্ঞেস করলে সে জানায় খাদিজা অসুস্থ্য। এই বলে শামীম চলে যায়।ঘন্টা যেতে না যেতে খবর পাই খাদিজাকে গলা কেটে শামীম পালিয়েছে। পরিবার সূত্রে আরো জানা যায়, শামীম তার স্ত্রী খাদিজা ও শিশুকন্যাকে নিয়ে মুন্সীগঞ্জ শহরের উপকন্ঠ নয়াগাঁও গ্রাম থেকে সাড়ে ৪মাস আগে বন্দর থানার একরামপুর ইস্পাহানি এলাকায় এসে উঠে।


এখানাকার বাচ্চু মিয়ার বাড়িতে ঘর ভাড়া নেয়। শামীম বন্দর ইস্পাহানি এলাকায় এক ডকইয়ার্ডের শ্্রমিক। এদিকে গত শনিবার ময়না তদন্ত শেষে নিহত খাদিজাকে তার বাপের বাড়ি মুন্সীগঞ্জের নয়াগাঁও গ্রামে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। পরের দিন এ ঘটনায় একটি মামলা ও হয়েছে।বন্দর থানার ওসি (তদন্ত) রাকিবুজ্জামান এর সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হলে তিনি জানান, খাদিজা হত্যাকান্ডের আসামীকে ধরার জন্যে পুলিশ কাজ করে যাচ্ছে। তিনি এ নৃসংশ হত্যাকান্ডের ঘটনার ব্যাপারে আরো বলেন, খাদিজার স্বামী শামীমের সঙ্গে অন্য একটি মেয়ের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায় ঝগড়া বিবাদ ঘটতো।শামীম প্রায় খাদিজাকে মারধরও করছে। পরকীয়ার ঘটনায় বাঁধা দেয়ায় এ খুনের ঘটনা ঘটেছে বলে প্্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। অন্যদিকে, খাদিজা হত্যাকান্ডের ৪দিন পার হয়ে গেলেও বন্দর থানা পুলিশ এখনো খুনিকে গ্রেফতার করতে না পারায় খাদিজার বাপের বাড়ির লোকজন আতঙ্কৃত হয়ে পড়েছে। উল্লেখ্য, বন্দর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ এবং হত্যাকান্ডে ব্যবহূত একটি রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করেছে।

বেস্টনিউজবিডি

Leave a Reply