টঙ্গিবাড়ীতে আ’লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ৫

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পাচঁগাও এলাকায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আ’লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে ইউনিয়ন আ’লীগের সহ-সভাপতি ও ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতিসহ ৫ জন আহত হয়েছেন। শনিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি নুরুল আমিন হালদারকে (৪০) টঙ্গিবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অপরজন পাচঁগাও ইউনিয়ন আ’লীগের সহ-সভাপতি ও মুক্তিযোদ্ধা মিলেনুর রহমান (৫৫), সওদাগর হাওলাদারকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, টঙ্গিবাড়ী-পাচঁগাও সড়কে থাকা গাছে ডালপালা হেলে পড়ায় যানবাহন চলাচলে বিঘ্ন দেখা দেয়। এ কারণে কয়েক দিন আগে গাছের ডালপালা কেটে ফেলা হয়।

বিষয়টি ভিন্ন খাতে নিতে ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি নুরুল আমিন হাওলাদার সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ তুলে টঙ্গিবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন।

এতে ক্ষুব্ধ হয় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। এর জের ধরে শনিবার সাড়ে ১২টার দিকে আ’লীগ নেতাকর্মীরা পাচঁগাও গ্রামে গিয়ে ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি নুরুল আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তর্কবিতর্ক দেখা দেয়।


এরই এক পর্যায়ে আ’লীগ নেতাকর্মীকে বিএনপি নেতা ও অভিযোগকারী নুরুল আমিনকে মারধর করলে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। এ সময় ওয়ার্ড বিএনপির ও আ’লীগের ৫ থেকে ৬ জন আহত হন।

আহত বিএনপি নেতার মা হালিমা বেগম জানান, আ’লীগ নেতা মিলেনুর রহমানের লোকজন তার ছেলেকে মারধর করেছে।

টঙ্গিবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এ খালেক জানান, গাছের ডাল কাটা নিয়ে দুই পক্ষে মধ্যে সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply