হেফাজতে ইসলাম-আ.লীগ পাল্টাপাল্টি ধাওয়া

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর এলাকায় গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা হেফাজতে ইসলামের আট কর্মীকে পিটিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে হেফাজতের অন্য কর্মীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ধাওয়া দেন। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রের বিবরণ অনুযায়ী, হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে মাইক্রোবাস রেখে ভবেরচর বাসস্ট্যান্ড জামে মসজিদে মাগরিবের নামাজ পড়েন।


এ সময় সেখানে অবস্থান নেওয়া আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশি করছিলেন। নামাজ শেষে হেফাজতের কর্মীরা মাইক্রোবাসের কাছে এলে তাঁদের গাড়িতে লাঠিসোঁটা রাখার কারণ জানতে চান আওয়ামী লীগের কর্মীরা। এ নিয়ে বাগিবতণ্ডার একপর্যায়ে হেফাজতের আট কর্মীকে পেটান আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা। কয়েকজন ধাওয়া খেয়ে পেছনে থাকা তাঁদের অন্য মাইক্রোবাসের কর্মীদের খবর দেন। এ পর্যায় হেফাজতের কর্মীরা লাঠিসোঁটা নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ধাওয়া করেন।

হেফাজতের কর্মীদের পেটানোর অভিযোগ অস্বীকার করে ভবেরচর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. লোকমান হোসেন সরকার বলেন, ‘সামনে থাকা মাইক্রোবাসের কর্মীদের গাড়িতে লাঠি রাখার বিষয়টি জানতে চাইলে তাঁরা আমাদের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন। তাঁদের চিৎকারে পেছনে থাকা আরও চারটি মাইক্রোবাস থেকে হেফাজতে ইসলামের ৩০-৩৫ জন কর্মী লাঠি নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ধাওয়া দেন।’

প্রথম আলো

Leave a Reply