নতুন দু’টি উদ্ধারকারী জাহাজ এনেছে সরকার

দীর্ঘ ২৮ বছর পর বর্তমান সরকার কোরিয়ায় নির্মীত নতুন দু’টি উদ্ধারকারী জাহাজ দেশে এনেছে বলে জানিয়েছেন নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাহজান খান। তিনি বলেন, “কোরিয়া থেকে আনা প্রতিটি উদ্ধারকারী জাহাজের উত্তোলন ক্ষমতা ২৫০ মেট্রিক টন। আর আগের দু’টির ক্ষমতা ছিল মাত্র ৬০ মেট্রিক টন।”

বুধবার বিকেলে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের পদ্মায় ভাসমান জাহাজে নৌ পরিবহনমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এর আগে মন্ত্রী মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া এলাকায় নদী ভাঙন রোধ প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি দেখতে সরজমিনে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেন।


তিনি আরও বলেন, “দেশে রুস্তম ও হামজা নামের দুইটি উদ্ধারকারী জাহাজ থাকলেও তা এখন বয়োবৃদ্ধ হয়ে গেছে।”

নদী পথ ড্রেজিং প্রসঙ্গে নৌ মন্ত্রী বলেন, “৭২ সালে বঙ্গবন্ধু ক্ষমতায় আসার পর দেশের নদী পথ খননের জন্য ৭টি ড্রেজার ক্রয় করার পর আর কোনো সরকার ড্রেজার ক্রয় করেনি।”

তিনি বলেন, “বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর ১১ হাজার ৪৭৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫৩টি নদী পথ খননের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ৩৬টি নদীপথ খননের জন্য টাকা দেওয়া হয়েছে।”

এ সময় বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান ড. খন্দকার সামছুদ্দোহা, বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান মজিবর রহমান, বিআইডব্লিউটিএর পরিচালক (নৌ সংরক্ষণ) আবুল বাসার, পরিচালক (বন্দর) সাইফুল হক খানসহ সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Reply