সিরাজদীখানে প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মন্দিরে হামলায় ৫ জন আহত

সালিশি বৈঠক চলাকালে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখানে একদল যুবক হামলায় অন্তত ৫ ব্যক্তি আহত হয়েছে। সিরাজদীখানের মির্জাকান্দা গ্রামে বাউল ঠাকুরের মন্দির ও মির্জাকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ হামলা করা হয়। এ সময় মন্দির ও বিদ্যালয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে। বুধবার সন্ধ্যায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

আহতদের মধ্যে ননী গোপাল মন্ডল, সুবল মন্ডল, মেহের আলী, চাঁন মিয়া ও মিঠুন মন্ডলকে স্থানীয় ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে আহত ননী গোপাল মন্ডল বাদী হয়ে সিরাজদীখান থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।


সিরাজদীখান থানার এসআই মো: সালাম জানান, মির্জাকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী মনছুরা আক্তারকে (১২) বুধবার সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে স্থানীয় যুবক মিঠুন মন্ডল ও তার সঙ্গীয়রা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

এ ঘটনার সুরাহা করতে বুধবার সন্ধ্যার দিকে মির্জাকান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে গন্যমান্য ব্যক্তিরা সালিশি বৈঠকে বসেন। সালিশি বৈঠকের এক পর্যায়ে স্কুল ছাত্রীর চাচা মহসিন ও তার সঙ্গীয় ১০-১২ জনের একদল যুবক সেখানে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীর হাত থেকে বাঁচতে বেশ কয়েকজন ব্যক্তি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন বাউল ঠাকুরের মন্দিরে আশ্রয় নেন। এতে হামলাকারীরা ওই মন্দিরেও প্রবেশ করে কয়েক জনকে মারধর করে ও ইটপাটকেল ছুড়ে।

যমুনা নিউজ

Leave a Reply