পুলিশের উপস্থিতিতে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৮

গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মীরকাদিমে পুলিশের উপস্থিতিতে প্রতিবেশী দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ৮ জন আহত হয়েছে। সদরের মীরকাদিম পৌরসভার কাজী কসবা এলাকায় রোববার দিবাগত রাতে মো: সোহেল বেপারী ও জলিল দেওয়ানের লোকজনের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে আহত মো: সোহেল বেপারী (৩৬), মোহাম্মদ হোসেন বাবুকে (৩৩) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর আহত মুক্তার হোসেন (৫৫), জলিল দেওয়ান (৫৫), সোহেল দেওয়ান (৩৫), রুমা বেগম (২৫), নাজিম (৩২), হারুন মিয়াকে (৩৪) প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।


ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রোববার বিকেলে সোহেল বেপারী তার বসত ভিটের সীমানা লাগোয়া একটি আম গাছ কাটতে গেলে প্রতিবেশী জলিল দেওয়ানের লোকজন বাঁধা দেয়। এতে সোহেল বেপারী সদর উপজেলার হাতিমারা পুলিশ ফাঁড়িতে প্রতিবেশী জলিল দেওয়ানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এতে হাতিমারা ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই ফরহাদ মিয়া রোববার রাতে ঘটনার তদন্তে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। এ সময় এসআইয়ের উপস্থিতিতে প্রতিবেশী জলিল দেওয়ানের লোকজন সোহেল বেপারীর মাথায় লাঠিসোটা দ্বারা আঘাত করলে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।

এদিকে, আজ সোমবার সকালে আহত সোহেল বেপারী বাদী হয়ে প্রতিবেশী জলিল দেওয়ানকে প্রধান আসামী করে সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর থানার ওসি (তদন্ত) ইয়ারদৌস হাসান পুলিশের উপস্থিতিতে সংঘর্ষের কথা অস্বীকার করে বলেন- মামলা রুজু করা হয়েছে। পুলিশ আসামীদের গ্রেফতারের প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

যমুনা নিউজ

Leave a Reply