লৌহজংয়ে বিদ্যুত স্পৃষ্টে ইট ভাটার মালিকসহ ২ জনের মৃত্যু

মোঃ রুবেল ইসলাম: লৌহজংয়ে বিদ্যুত স্পৃষ্টে ইটভাটার মালিকসহ ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আরো ৪ জন নির্মাণ শ্রমিক আহত হয়েছে। নিহতরা হলেন দৈনিক ভোরের কাগজ লৌহজং উপজেলার প্রথীনিতী মোঃ রুবেল ইসলাম এর পাসের বাড়ী উপজেলার দক্ষিণ মেদেনীমন্ডল এলাকার তানিয়া ব্রিক ফিল্ডের মালিক আব্দুল লতিফ (৪৫) ও শ্রমিক সুমন (২৯)। সুমনের ফরিদপুরে আব্দুল মজিদের ছেলে। আহত শ্রমিকরা বসত-ঘর নির্মাণ করে থাকেন। দক্ষিণ মেদেনীমন্ডল এলাকায় সুমন ভাড়া থেকে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। গতকাল শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে লৌহজং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্যের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত নির্মাণ শ্রমিকদের মধ্যে ৪ জনকে শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।


পৃুলিশ জানায়, সকাল ১০ টার দিকে লৌহজং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামে সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলামের বাড়ির একটি পুরাতন টিনসেট ঘর ভাঙ্গা হয়। পরে টিনসেট ঘরের মালামাল অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার সময় বাড়ির পাশের বিদ্যুত সঞ্চালন লাইনের তারে জড়িয়ে পড়েন ইটভাটার মালিক আব্দুল লতিফ, নির্মাণ শ্রমিক সুমনসহ ৬ নির্মাণ শ্রমিক। তাদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় পার্শ্ববর্তী শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে বেলা ১১ টার দিকে আব্দুল লতিফ ও সুমন মারা যায়।

এদিকে, কান্দিপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম তার বসতভিটের একটি পুরাতন টিনসেট বসত-ঘর বিক্রি করেন। ওই পুরাতন বসত-ঘর কিনেন ইটভাটার মালিক আব্দুল রতিফ। এতে শুক্রবার সকালে বসত-ঘর ভেঙ্গে অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার সময় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে। এদিকে গতকাল শুক্রবার বাদ আসর মাওয়া বাজার এলাকায় আব্দুল লতিফের জানাযা সম্পন্ন হয়। পরে মাওয়া চৌরাস্তা জামে মসজিদ কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। অপর নিহত সুমনের মরদেহ দুপুর ১২ টার দিকে ফরিদপুরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে

==============

মুন্সীগঞ্জে বিদ্যুত স্পৃষ্টে ইট ভাটার মালিকসহ ২ জনের মৃত্যু

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে বিদ্যুত স্পৃষ্টে ইটভাটার মালিকসহ ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আরো ৪ জন নির্মাণ শ্রমিক আহত হয়েছে। নিহতরা হলেন, লৌহজং উপজেলার দক্ষিণ মেদেনীমন্ডল এলাকার তানিয়া ব্রিক ফিল্ডের মালিক আব্দুল লতিফ (৪৫) ও নির্মাণ শ্রমিক সুমন (২৯)। সুমন ফরিদপুরে আব্দুল মজিদের ছেলে। আহত শ্রমিকরা বসত-ঘর নির্মাণ করে থাকেন। দক্ষিণ মেদেনীমন্ডল এলাকায় সুমন ভাড়া থেকে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে লৌহজং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্যের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। আহত নির্মাণ শ্রমিকদের মধ্যে ৪ জনকে শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পৃুলিশ জানায়, সকাল ১০ টার দিকে লৌহজং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামে সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলামের বাড়ির একটি পুরাতন টিনসেট ঘর ভাঙ্গা হয়। পরে টিনসেট ঘরের মালামাল অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার সময় বাড়ির পাশের বিদ্যুত সঞ্চালন লাইনের তারে জড়িয়ে পড়েন ইটভাটার মালিক আব্দুল লতিফ, নির্মাণ শ্রমিক সুমনসহ ৬ নির্মাণ শ্রমিক। তাদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় পার্শ্ববর্তী শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে বেলা ১১ টার দিকে আব্দুল লতিফ ও সুমন মারা যায়।


এদিকে, কান্দিপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম তার বসতভিটের একটি পুরাতন টিনসেট বসত-ঘর বিক্রি করেন। ওই পুরাতন বসত-ঘর কিনেন ইটভাটার মালিক আব্দুল রতিফ। এতে শুক্রবার সকালে বসত-ঘর ভেঙ্গে অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার সময় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে। এদিকে গতকাল শুক্রবার বাদ আসর মাওয়া বাজার এলাকায় আব্দুল লতিফের জানাযা সম্পন্ন হয়। পরে মাওয়া চৌরাস্তা জামে মসজিদ কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। অপর নিহত সুমনের মরদেহ দুপুর ১২ টার দিকে ফরিদপুরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ঢাকা নিউজ এজেন্সি
=============

মুন্সীগঞ্জে বিদ্যুত স্পর্শে আরো এক দিনমজুরের মৃত্যু

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে বিদ্যুত স্পৃষ্টে আজ শুক্রবার দুপুরে আরো এক দিনমজুরের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে একই ঘটনায় আব্দুল লতিফ খা (৪৫) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। এতে বিদ্যুত স্পর্শে মৃত্যুর সংথ্যা দাঁড়ালো ২ জনে। আব্দুল লতিফ মাওয়া ব্রিক ফিল্ডের মালিক। এ ঘটনায় আহত দিনমজুরদের স্থানীয় একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা মিডফোর্ট হাসপাতালে নেওয়ার পথে বিদ্যুত স্পর্শে আহত দিনমজুর সুমন মিয়া (২৯) মারা যান বলে দাবী করে নিহত ইটভাটার মালিক লতিফের শ্যালক মো: রুবেল খা।

এদিকে, অপর আহত দিনমজুর জাফর মিয়া (৪০), জাকির হোসেন (২৭), আব্দুল হাকিম (৪০), মোফাজ্জল হোসেন (২৪), মো: রফিক (৩২) ও জহিরুলকে (৩২) লৌহজং উপজেলার একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে । লৌহজং থানার ওসি জাকিউর রহমান বিদ্যুত স্পর্শে ২ জনের ব্যক্তির মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেন। বিদ্যুত স্পর্শের এই ঘটনাটি ঘটে কান্দিপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলামের বাড়িতে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে লৌহজং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামে সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলামের বাড়ির একটি পুরাতন টিনসেট ঘর ভাঙ্গা হয়। পরে টিনসেট ঘরের মালামাল অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার সময় বাড়ির পাশের বিদ্যুত সঞ্চালন লাইনের তারের জড়িয়ে পড়েন ইটভাটার মালিক লতিফ ও অপর ৭ জন দিনমজুর। এতে আশংকাজনক অবস্থায় ইটভাটার মালিক লতিফকে পার্শ্ববর্তী শ্রীনগর উপজেলার ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর সেখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন। অত:পর ঢাকায় নেওয়ার পথিমধ্যে আহত দিনমজুর সুমন মিয়া মারা যান।

এদিকে, কান্দিপাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য তাজুল ইসলাম তার বসতভিটের একটি পুরাতন টিনসেট বসত-ঘর বিক্রি করেন। ওই পুরাতন বসত-ঘর কিনেন ইটভাটার মালিক আব্দুল রতিফ। এতে শুক্রবার সকালে বসত-ঘর ভেঙ্গে অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার সময় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে ওই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

যমুনা নিউজ

Leave a Reply