জেলা শিল্পকলা কুক্ষিগত করায় ডিসির কাছে সাংস্কৃতিক জোটের নালিশপত্র

সামসুল হুদা হিটু: মুন্সীগঞ্জ শহরের পুরাতন কাচারীস্থ জেলা শিল্পকলায় নতুন সদস্য অন্তভুক্তি ও কমিটির কর্মকান্ড পরিচালনায় গঠনতন্ত্রের বেশ কয়েকটি ধারা লংঘনের অভিযোগে জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত ভাবে নালিশ জানিয়েছে।

জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারন সম্পাদক সাইফুল আলম স্বপনের স্বাক্ষরে এ নালিশ করা হয়েছে। ২ বছর মেয়াদী আহবায়ক কমিটি এ সরকারের সাড়ে ৪ বছর ধরে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে জেলা শিল্পকলা একাডেমীকে কুক্ষিগত করার কথা উঠে এসেছে। জেলা প্রশাসক পদাধিকার বলে শিল্পকলার সভাপতি বা আহবায়কের শীর্ষ পদ অলংকৃত করে থাকেন। সদস্য সচিব ও অন্যান্য পদ গুলোতে সাংস্কৃতিক কর্মীদের ভোটে কিংবা সাধারন সভার সর্ব-সম্মতিতে নির্বাচিত হন। কিন্তু এ সরকারের আমলে এর কোনটারই দরকার হয়নি।

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারন সম্পাদক সাইফুল আলম স্বপন জানান, সাধারন সদস্য অন্তভুক্তিতে ২৫ টাকার স্থলে ৩’শ টাকা করে ও আজীবন সদস্যের বেলায় ১ হাজার টাকার স্থলে ৩ হাজার টাকা নেওয়া হচ্ছে। এক্ষেত্রে গঠনতন্ত্রের ধারা ২’র ক, খ ও ঘ ধারা লংঘন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবে এসে মুন্সীগঞ্জ চারুকলা সংস্থার প্রশিক্ষক সোনিয়া হাবিব লাবনী ডিসির কাছে নালিশ করার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের জানান, জেলা শিল্পকলার কমিটি মেয়াদ ২ বছর। অথচ জেলার ডিসি ব্যতিত এ সরকারের সাড়ে ৪ বছরে একই কমিটি তথা জেলা শিল্পকলার সদস্য সচিব মীর নাসির উদ্দিন উজ্জল ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে আছে। ২ বছরের মেয়াদ শেষে চুপটি করে আরো ২ বছরের জন্য শিল্পকলার চেয়ারে বসে থাকে। তারও মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে সম্প্রতি আবারো আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।


এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদলের সংগে মোবাইল ফোনে কথা বললে তিনি স্থানীয় সাংস্কৃতিক কর্মী ও সংবাদ কর্মীদের বলেন- সাধারন সদস্য ও আজীবন সদস্যের কাছ থেকে বাড়তি টাকা জমা নেওয়া হচ্ছে শিল্পকলার উন্নয়নের জন্য। এছাড়া শিগগিরই নির্বাচনের দিকে এগুচ্ছে শিল্পকলা একাডেমী। তিনি দাবী করেন- শিল্পকলা কুক্ষিগত হয়নি, আশা করি হবেও না। চুপিসারে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে, যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে-তা সম্পুন্ন মিথ্যা ভিত্তিহীন।

ওয়ান নিউজ

Leave a Reply