বিরোধী দলের নেত্রীকে মুন্সীগঞ্জের শচীন বললো হরতাল ডাকিও না

aaaMunshigonjআমাকে পরীক্ষা দিতে দিও
“আমরা হরতাল ভয় পাই। তোমাদের ডাকে হরতাল আসে, আর হরতালে আমরা পরীক্ষা দিতে পারি না। হরতাল ডাকিয়া আনিও না। আমাকে পরীক্ষা দিতে দিও, আর হরতাল দিও না”-বৃহস্পতিবার প্রথম দিনের পরীক্ষা শেষে দেশের প্রধান বিরোধী দলের নেত্রীর প্রতি এমন অনুনয়-বিনয় আবদার জানিয়েছেন মুন্সীগঞ্জ শহরের জেএসসি পরীক্ষার্থী শচীন চন্দ্র দাস।

শহরের কে. কে গর্ভমেন্ট ইনষ্টিটিউশনের কোমলমতি এ শিক্ষার্থী শহরের উপকন্ঠ নয়াগাঁও এলাকা¯’ প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড. ইয়াজউদ্দিন আহমেদ রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে জেএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়।


শহরের গোয়ালপাড়া এলাকার বাসিন্দা বিমল চন্দ্র দাসের ছেলে জেএসসি পরীক্ষার্থী দ্রুব চন্দ্র রাজনৈতিক নেতাদের বলতে চান-“আমরা একদিন বড় হবো, আমরাও একদিন বিরোধী দলের নেতা হবো, সেদিন আমরা সন্তানের পরীক্ষার সামনে হরতাল দেবো না”। দ্রুব’র উদাত্ত আহবান তোমাদের ভালোবাসি আমরা, তাই আমাদের ভালোবাসো তোমরা। আর হরতাল উপহার চাই না আমার।

জেএসসি পরীক্ষার্থী সচীন ও দ্রুব মতো হাজারো ক্ষুদ্র শিক্ষার্থীর একটাই কথা আর হরতাল দিও না। মুন্সীগঞ্জের ৬ টি উপজেলা জুড়ে বৃহস্পতিবার জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে উৎসব মুখর পরিবেশে।


হরতালে ভুক্তভোগী এক ক্ষুদে শিক্ষার্থীর অভিভাবক পরেশ চন্দ্র বলেন- প্রধান বিরোধী দল বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের টানা ৬০ ঘন্টার হরতালের মুখে পরীক্ষার শুরুটাই ধুসর বর্ন রুপ ধারন করে। হরতালের কারনে সোমবার, মঙ্গলবার ও বুধবারের পরীক্ষা গুলো পিছিয়ে গেছে।

যমুনা নিউজ

Leave a Reply