ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যানজট

ঘন কুয়াশা ও অতিরিক্ত যানবাহনের চাপে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় ছুটির দিন জুড়েই অসহনীয় যানজটে নাকাল হয়ে পড়ে হাজার হাজার যাত্রী সাধারন। শুক্রবার জেলার গজারিয়া উপজেলার জামালদী বাস ষ্ট্যান্ড থেকে বাউশিয়া পাখি পয়েন্ট পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে ১২ ঘন্টা ধরে যানজটের চিত্র দেখা গেছে।

সন্ধ্যা পৌনে ৬ টায় এ রিপোর্ট লেখার সময় পর্যন্ত মেঘনা-গোমতী সেতুর কুমিল্লা প্রান্তের দিকে হাজার হাজার যানবাহন আটকে থাকার দৃশ্য দেখা গেছে। এই সেতুর গজারিয়া প্রান্তে বাউশিয়া পাখি পয়েন্ট থেকে জামালদী বাস ষ্ট্যান্ড পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার এলাকায় পিঁপড়ের মতো গতিতে চলছে যানবাহন।


ভবরেচর হাইওয়ে ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেন দাবী করেছেন, যানজট নিরসন হতে আরো কয়েক ঘন্টা লেগে যেতে পারে বলে ।

ভবেরচর হাইওয়ে ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেন জানান, ঘন কুয়াশার কবলে শুক্রবার ভোরে মহাসড়কে বাউশিয়া পাখি পয়েন্ট সংলগ্ন মেঘনা-গোমতী সেতুর উপর একটি পন্যবাহী ট্রাক ও যাত্রীবোঝাই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটলে যান দু’টি সেখানেই বিকল হয়ে পড়ে।

তাছাড়া টানা অবরোধ-হরতাল শেষে মহাসড়কে অতিরিক্ত যানবাহন চাপ থাকায় মহাসড়কে ধীর গতিতে যান চলাচল করছে। এ সব কারনে গজারিয়ার সর্বত্র এ মহাসড়কে কয়েক হাজার যানবাহন যানজটে আটকা পড়ে আছে। দুর্ঘটনা কবলিত বাস ও ট্রাক সেতুর উপর থেকে সরিয়ে নেওয়া হলেও অতিরিক্ত যানবাহনের চাপ সামলাতে হিশশিম খেতে হচ্ছে হাইওয়ে ও গজারিয়া থানা পুলিশকে।

যমুনা নিউজ

Leave a Reply