র‌্যাব পরিচয়ে ছাত্রলীগ নেতার পায়ে গুলি

rabনারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মুন্নাকে (৩২) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। মুন্নার দাবী, সোমবার বিকেলে সাদা পোশাকের কয়েকজন ব্যক্তি তাকে র্যা ব পরিচয়ে একটি সাদা মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যায়। পরে তার হাত পা ও চোখ বেঁধে দুই পায়ে গুলি করে মুন্সীগঞ্জে মোক্তারপুর সেতুর নিচে ফেলে দেয়।

মঙ্গলবার সকালে লোকজন তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। পরে চিকিৎসা শেষে দুপুরে সে বাড়িতে আসে।


মুন্না সাংবাদিকদের জানান, র্যা ব পরিচয়ে কয়েকজন লোক সোমবার বিকাল ৫টায় ফতুল্লার পোষ্ট অফিস এলাকা থেকে আমাকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। পরে মাইক্রোবাসের ভিতরে হাত, পা, চোঁখ এবং মুখ বেধে ফেলে তারা। এরপর বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে রাত ২টায় কোন এক স্থানে নিয়ে দু’পায়ে ৩ রাউন্ড গুলি করে। মঙ্গলবার সকালে লোকজন উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।
rab
ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আকতার হোসেন জানান, এ ঘটনায় কেউ কোন অভিযোগ করেনি। তাছাড়া পুলিশ মুন্না নামের কাউকে আটকও করেনি। এ ব্যাপারে খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।

ফতুল্লা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শরীফুল শরীফ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

নিউজনারায়ণগঞ্জ

Leave a Reply