পদ টিকিয়ে রাখতে খোকার শোডাউন রাজনীতি

khokaবিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, ঢাকা মহানগর বিএনপির আহবায়ক ও অবিভক্ত ঢাকা সিটির সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা, জিয়ার মাজার জিয়ারত করার নামে ব্যাপক শোডাউন করেছেন।

সদ্য ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কে সাথে নিয়ে মঙ্গলবার দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মাজার জিয়ারতে যান তিনি। মাজার জিয়ারতকে কেন্দ্র করে সংসদ ভবন এলাকায় ব্যাপক শোডাউন করেছেন বিএনপির এই নেতা।

ঢাকার সাবেক এই মেয়রের দলের কাউন্সিলের আগে এই শোডাউন কে অনেকে মনে করছেন দলে নিজের পদ টিকিয়ে রাখার কৌশল হিসেবে।

সরকার বিরোধী আন্দোলনে সারা দেশে সফল হলেও ঢাকা মহানগরে ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি ও ১৯ দলীয় জোট। এজন্য ১৯দলের আহবায়ক খোকার নিষ্ক্রিয়তাকে দায়ী করেন দলের ও জোটের নেতারা।

এই জন্য দলের অনেকে আন্দোলনের ব্যর্থতার জন্য সরাসরি খোকাকে দায়ী করেছেন। বিএনপি নেত্রী সরকার বিরোধী আন্দোলন চাঙ্গা করতে এরই মাঝে সাদেক হোসেন খোকা জেলে আটক থাকার সময় ঢাকা মহানগর বিএনপির নেতাদের সাথে মতবিনিময় করেছেন। বৈঠকে দলের ঢাকা মহানগর কমিটি গঠন নিয়ে নেতাদের অভিমত নেন বেগম জিয়া। যদিও দল থেকে আগেই ঘোষণা দেয়া হয়েছে খোকা কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর পূর্ণগঠন করা হবে ঢাকা মহানগর কমিটি।

বিশ্লেষকরা মনে করেন, দলের চেয়ারপার্সনের কাছে নিজের অবস্থান তুলে ধরতে এবং নিজের পদ টিকিয়ে রাখতে মূলত খোকার এই শোডাউনের রাজনীতি।

তারা মনে করেন, খোকা যদি গত ২৯ডিসেম্বর এই লোক সমাগম করতে পারতেন এবং সরকার বিরোধী আন্দোলনে নিজেকে মেলে ধরতে পারতেন তাহলে আজকে বিএনপির অবস্থান অন্যরকম হতে পারত।

তবে খোকার এই শোড়াউন রাজনীতি শেষ পর্যšত্ম দলে নিজের অবস্থান কতটা শক্ত করবে তা ভবিষ্যতই বলে দিবে।

আমাদের সময়

Leave a Reply