সংসদে নারী আসনে আ. লীগের ৩৯ প্রার্থী চূড়ান্ত

sangsadদশম সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনে প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ, যার অধিকাংশই নতুন। বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ৩৯ প্রার্থীর নাম জানানো হয়।

গতবারের মহিলা সংসদ সদস্যদের মধ্যে তারানা হালিম, ফজিলাতুন নেসা বাপ্পী, ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা ও পিনু খান এবারো থাকছেন।

গতবার সরাসরি ভোটে বিজয়ী সানজিদা খানম ও নীলুফার জাফরউল্যাহ এবার মহিলা আসনের এমপি হতে যাচ্ছেন।

তফসিল অনুযায়ী মনোনয়ন দেয়ার সময় শেষ হওয়ার তিন দিন আগে নিজেদের প্রার্থী চূড়ান্ত করল ক্ষমতাসীন দল।

আগামী ৯ মার্চ মনোনয়ন জমা শেষে বাছাই হবে ১১ মার্চ। ১৮ মার্চ পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহার করা যাবে। ভোট হবে ৩ এপ্রিল।

সংসদে আসন সংখ্যা অনুপাতে সংরক্ষিত মহিলা আসনের প্রার্থীর সংখ্যা বণ্টিত হয়। এবার আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোট (জাসদ, ওয়ার্কার্স পার্টিসহ) পাচ্ছে মোট ৪১টি আসন।

৫০ মহিলা আসনের বাকিগুলোর মধ্যে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ছয়টি এবং স্বতন্ত্রদের জোট পাবে তিনটি আসন পাবে।

নবম সংসদে আওয়ামী লীগের যে ৩৯ জন মহিলা সংসদ সদস্য ছিলেন, এবারের তালিকায় তার ৩৫ জনই নেই।

বাদপড়াদের মধ্যে রয়েছেন অপু উকিল, নাজমা আক্তার, জিনাতুন নেসা তালুকদার, শাহিদা তারেখ দীপ্তি, হামিদা বানু শোভা, সালেহা মোশাররফ প্রমুখ।

স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরী নবম সংসদে সংরক্ষিত আসনের সদস্য ছিলেন। শিল্পী মমতাজ বেগমও ছিলেন মহিলা আসনের এমপি। তারা দুজনই এবার সরাসরি ভোটে জিতে এসেছেন।

এবার প্রার্থী হিসেবে নতুন যারা মনোনয়ন পেয়েছেন, তাদের মধ্যে সেক্টর কমান্ডার খালেদ মোশাররফের মেয়ে মাহজাবিন খালেদও রয়েছেন।

এছাড়াও রয়েছেন- সেলিনা জাহান লিটা, সফুরা বেগম রুমী, হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, উম্মে কুলসুম স্মৃতি, বেগম আখতার জাহান, সেলিনা বেগম স্বপ্না, সেলিনা আখতার বানু, লায়লা আরজুমান বানু, শিরিন নাঈম পুনম, কামরুল লায়লা জলি, হেপী বড়াল, রিফাত আমিন, নাসিমা ফেরদৌসী, লুৎফুন্নেছা, মমতাজ বেগম, মনোয়ারা বেগম, ফাতেমা জোহরা রানী, দিলারা মাহবুব আসমা, ফাতেমা তুজ্জহুরা, সাবিনা আক্তার তুহিন, রহিমা আক্তার, হোসনে আরা বাবলী, কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী, রোখসানা ইয়াসমিন ছুটি, নাভানা আক্তার, আসমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, শামছুন নাহার বেগম, ওয়াসিফা আয়শা খান, জাহানারা বেগম সুরমা, সাবিহা নাহার বেগম (সাবিহা মুসা), ফিরোজা বেগম চিনু ও সুচিত্রা তনচংগ্যা।

নারী আসনে এবার আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হতে ৮২২ জন আবেদন করেছিলেন। তাদের মধ্য থেকে এই ৩৯ জনকে বাছাই করে শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন দলের পার্লামেন্টারি বোর্ড।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “প্রার্থীদের রাজনৈতিক জীবন, জনসম্পৃক্ততা ও দেশের বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে তাদের অবদান বিবেচনা করে এই মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়েছে।”

বিডিনিউজ

Leave a Reply