সিরাজদিখানে কোর্টের নির্দেশ উপেক্ষা : মামলা, আসামী প্রকাশ্যে ঘুরে বেরাচ্ছে

courtকোর্টের নির্দেশ উপেক্ষা করে জমি দখলকারীদের হামলায় মালামাল লুট, ভাংচুর ও আহত হয়েছে অনেক। পুরিয়ে দিয়েছে জমির আলু। মামলার তিনদিন পরও এলাকায় আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেরাচ্ছে। রহস্যজনক কারনে পুলিশের নীরব ভূমিকায় এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার পাথরঘাটা গ্রামে।

প্রত্যক্ষদর্শী গ্রামবাসী জানান, পাথরঘাটা গ্রামের নাজিমউদ্দিন ও শাহাদাত হোসেন মোহরের জমিতে পার্শ্ববর্তী উত্তর পাথরঘাটা গ্রামের শাহআলম, মনির মালিকানা দাবী করলে কোর্টে মামলা হয়। পরিপ্রেক্ষিতে আদালত জমি নাজিমদ্দিন ও শাহাদাত হোসেন মোহরের দখল রেখে অপর পক্ষকে জমিতে যেতে নিষেধ করে। কিন্ত শনিবার সকালে উত্তর পাথরঘাটা গ্রামের শাহ আলম ও মনির প্রায় ২০/২৫ জন লোকজন নিয়ে জমিতে গিয়ে খুটি গারলে নাজিমউদ্দিন বাধা দেয়। তখন দখলকারীরা নাজিমউদ্দিন, মেহেদী ও মুক্তিযোদ্বা সিদ্দিকুর রহমানকে মারধর করে ও জমিতে থাকা আলুতে আগুন লাগিয়ে দেয়।

এর পরিপ্রেক্ষিতে গ্রামবাসী বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে তখন দখলকারীরা পাথরঘাটা গ্রামে ঢুকে বিভিন্ন বাড়িতে হামলা, ভাংচুর চালায়। এতে গ্রামের নিরিহ মানুষসহ কমপক্ষে ২৫ জন আহত হয়। তখন বিভিন্ন বাড়ির মালামাল ক্ষতি সাধিত হয়। এব্যাপারে সিরাজদিখান থানায় আটজনের নাম উল্লেখসহ অগ্গাত ৩০ জনকে আসামী করে থানায় মামলা হয়েছে শনিবার সন্ধায়। কিন্তু ঘটনার তিনদিন পরও আসামীরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেরাচ্ছে বলে বাদি পক্ষের অভিযোগ। যেকোন সময় বড় ধরনের কোন দূর্ঘটনার আশংকা রয়েছে বলে জানান। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। পুলিশের ভূমিকা রহস্যজনক বলে এলাকাবাসী জানান।

এব্যাপারে সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাসার জানান, আমরা সময় মত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করব।

বাংলাপোষ্ট

Leave a Reply