টঙ্গীবাড়িতে যুবদল কর্মী হত্যা মামলার বাদী গ্রেপ্তার

arrestমুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়িতে যুব দল কর্মী হত্যা মামলার বাদীকে মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। উপজেলা যুবদল কর্মী আলদী গ্রামের এহসানুল হক কংকন (২৪) হত্যা মামলার আসামী জসিম ছৈয়ালের স্ত্রী লায়লা বেগম (৩২) কংকনের বড় ভাই সাবেক র‌্যাব সদস্য এমদাদুল হক পলাশ ও ইউপি সদস্য শামসুদ্দিনকে আসামী করে থানায় শ্লীলতাহানির মামলা করে। ২৭ মার্চ গভীর রাতে পুলিশ পলাশকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। শুক্রবার সকালে তাকে কোর্টে চালান দিয়েছে। এলাকাবাসী জানিয়েছে, কংকন হত্যা মামলাকে ভিন্ন খাতে নেয়ার জন্য পলাশের বিরুদ্ধে আসামী পক্ষ মিথ্যা মামলা করেছে। জসিমকে গ্রেপ্তার না করে মিথ্যা মামলায় পলাশকে হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তার পরিবারের।

গত ৪ জানুয়ারি রাত ৮ টায় জসিমসহ কয়েকজন মিলে কংকনকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। রাত ১২ টায় থানা পুলিশ খবর পেয়ে উপজেলার শিমুলিয়া প্রাইমারী স্কুলের ভোট কেন্দ্রের পাশের ডোবা থেকে কংকনের লাশ উদ্ধার করে। ৫ জানুয়ারি সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে এ ঘটনায় ৪ ফেব্রুয়ারি পলাশ বাদী হয়ে মুন্সীগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে জসিমসহ ৯ জনকে আসামী করে কংকন হত্যার মামলা দায়ের করে। ওই ঘটনার জের ধরে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে পলাশকে ফাঁসানোর জন্য এ মিথ্যা মামলা করেছে বলে এলাকাবাসী জানায়। টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি মো. আ. মালেক জানান, বাদির এজাহার দায়ের করার কারণেই মামলাটি নিতে হয়েছে।

নির্ভর সূত্রে জানা গেছে, সিনেমা হলের মালিক জসিমের সাথে পলাশদের জমিজমা নিয়ে দীর্ঘ দিনের বিরোধ চলে আসছে। গত ৫ জানুয়ারি বিএনপিবিহীন নির্বাচনের অস্থিরতার সুযোগে কংকনকে শিমুলিয়া ভোট কেন্দ্রে ভোটের আগের রাতে ডেকে নিয়ে কংকনকে হত্যা করে ডোবায় ফেলে রাখা হয়। সাজানো হয় কংকন পেট্রোল বোমা ছুড়তে গিয়ে পুলিশের ধাওয়ায় পানিতে পড়ে ডুবে মারা গেছে। পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা। টঙ্গীবাড়ি থানার এসআই আহসানুল হক জানান, বোমার শব্দ পেয়ে পুলিশ চারিদিক খোঁজাখুজি শুরু করলে ডোবার কচুরির মধ্যে গোঙরানি শুনতে পেয়ে সেখান থেকে কংকনকে আহতাবস্থায় উদ্ধার করে টঙ্গীবাড়ি স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক কংকনকে মৃত বলে ঘোষণা করে। ওাই পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানিয়েছেন, কংকনকে তারা কেউ বোমা নিক্ষেপ করতে দেখেনি। তবে ধারণা করা হয়েছে বোমা মেরে পালাতে গিয়ে তার এই পরিণতি হয়েছে। শামসুদ্দিন মেম্বার জানান, বিষয়টি সম্পূর্ণ পূর্ব পরিকল্পিত।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা

Leave a Reply