পদ্মা সেতু নির্মাণ: শুধু চীনা কোম্পানির প্রস্তাবনা জমা

padmaপদ্মা সেতু নির্মাণে শুধু চীনা একটি প্রতিষ্ঠান আর্থিক প্রস্তাব জমা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার আর্থিক প্রস্তাবনা জমা দেয়ার শেষ দিনে চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড প্রস্তাবনা জমা দেয়।

সেতু ভবনে যোগাযোগমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, “২০১৩ সালে ২৬ জুন পদ্মা সেতুর কারিগরি দরপত্র আহ্বানের পর চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড, ডেলিম এল অ্যান্ড টি জে ভি এবং স্যামসাং সি অ্যান্ড টি গ্রুপ দরপত্র কিনেছিল।

“দরপত্র গ্রহণের নির্ধারিত সময় ঘোষণা করা সত্ত্বেও ডেলিম এল অ্যান্ড টি জে ভি আর স্যামসাং সি অ্যান্ড টি গ্রুপের আবেদনে চার বার সময় বর্ধিত করে এ বছর ৯ জানুয়ারি নির্ধারিত করা হয়েছিল। এরপর দরপত্র মূল্যায়ন শেষে যখন আর্থিক প্রস্তাব আহ্বান করা হয় তখন এই দুটি কোম্পানি আবার ১২ সপ্তাহ সময় চায়।”

মন্ত্রী বলেন, “এবার সেতু প্রকল্পের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান আ্যাকম এবং টেকনিক্যাল ইভালুয়েশন কমিটি আর সময় না বাড়ানোর পক্ষে মতামত দেয়ায় আর্থিক প্রস্তাবনা সাবমিট করার জন্য ২৪ এপ্রিল বিকাল ৩টা পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়া হয়েছিল।

“এই সময়ের মধ্যে শুধু চায়না ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড আর্থিক প্রস্তাবনা জমা দেয়ায় তাদেরকেই বিবেচনা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।”

সে ক্ষেত্রে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ তারাই পাচ্ছে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, “এখনই এ ব্যাপারে কিছু বলা যাচ্ছে না।

“আমাদের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান এবং টেকনিক্যাল ইভ্যালুয়েশন কমিটি তাদের প্রস্তাব পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর এ বিষয়ে নিশ্চয়তা দেয়া সম্ভব হবে। তবে এটা ঠিক যে আমরা জুনের মধ্যে পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ শুরু করতে চাই।”

পদ্মা সেতু নির্মাণে প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৯ হাজার ১৭২ কোটি ১৭ লাখ টাকা।

বিডিনিউজ

Leave a Reply