পদ্মা সেতু দাদুর নামে চাই : সাক্ষাৎকারে খিলখিল কাজী

kkKaziবাংলাদেশ, বাংলাদেশের মানুষ, বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং কাজী নজরুল ইসলাম এক ও অবিভাজ্য সত্তা। অসাম্প্রদায়িক চেতনার এই মানুষটির ১১৫তম জন্মবার্ষিকী ছিল গত রোববার। নজরুল ইসলাম আজো কোথাও স্রেফ ইসলামের কবি আবার কারো কাছে অসাম্প্রদায়িকতার প্রতিরূপ। বর্তমান সময়ের নজরুল ভাবনা ও এর প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে নজরুল ইসলামের নাতনি সংগীতশিল্পী খিলখিল কাজীর একান্ত সাক্ষাৎকার।

প্রশ্ন : জাতীয় কবি হিসেবে নজরুল কি সত্যিই অবহেলিত? নজরুল পরিবারের সদস্য হিসেবে বিষয়টা কীভাবে দেখছেন?

খিলখিল : আমি বলবো, কথাটা পুরোপুরি সত্য না হলেও কিছুটা তো সত্য অবশ্যই। নজরুল এ দেশের জাতীয় কবি কিন্তু জাতীয় কবির যে মর্যাদা তা নজরুল পুরোমাত্রায় পান না। দেখা যায়, নজরুলের জন্মবার্ষিকী আর মৃত্যুবার্ষিকী ঘিরে কিছু অনুষ্ঠান হয় প্রতিবছর। এ সময়টায় শুরু হয় শিল্পীদের ছোটাছুটি। বছরের বাকি দিনগুলোয় নজরুলকে নিয়ে আর কিছু হয় না। নজরুলের নামে নেই কোনো ওয়েবসাইট। একটা দেশের জাতীয় কবির নামে এই আধুনিক যুগে ওয়েবসাইট থাকবে না তা হতে পারে না।

প্রশ্ন : নজরুল চর্চার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা কী?

খিলখিল : নজরুল চর্চার ক্ষেত্রে আমি কোনো প্রতিবন্ধকতা দেখতে পাচ্ছি না। আমরা যদি নজরুল চর্চা করতে চাই, তাহলে নজরুল চর্চা করতে পারবো। কথা হচ্ছে নজরুলকে আমরা নজরুল হিসেবে ব্যবহার করতে চাই, নাকি চাই না। লক্ষ্য করলে দেখা যাবে, দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সিলেবাসে নজরুলের উপস্থিতি খুব বেশি নেই।

প্রশ্ন : ফোন কোম্পানিগুলো ওয়েলকাম টিউনে নজরুলের গান নিয়ে বাণিজ্য করছে দীর্ঘদিন। এসব কোম্পানিগুলো রয়্যালিটি দেয়?

খিলখিল : না। এরা আমাদের কোনো ধরনের রয়্যালিটি দেয় না। নজরুলের গান নিয়ে এরা কোটি কোটি টাকার বাণিজ্য করছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য আমরা এদের থেকে এক পয়সাও পাই না। শুনেছি, এক রমজান মাসেই নজরুলের ইসলামি সংগীত ওয়েলকাম টিউন করে এরা কয়েকশ কোটি টাকা অবৈধ আয় করে। এটা বন্ধ হওয়া উচিৎ। আমরা এসবের কোনো অনুমতি দেইনি।

প্রশ্ন : পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেছিলেন. তিনি নজরুল একাডেমি গঠন করবেন। তিনি কি তার কথা রেখেছেন?

খিলখিল : মমতাকে ধন্যবাদ তিনি তার কথা রেখেছেন। পশ্চিমবঙ্গে তিনি নজরুল একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেছেন। প্রতিষ্ঠা করেছেন নজরুল তীর্থও। তবে পশ্চিমবঙ্গে নজরুলকে নানাভাবে হেয় এবং ছোট করে দেখা হয়।kkKazi

প্রশ্ন : বাংলাদেশ সরকারের কাছে আপনার কোনো চাওয়া আছে?

খিলখিল : আমার একটা শেষ চাওয়া আছে। নজরুলের নামে এদেশে খুব বেশি কিছু নেই। আমি চাই নজরুলের নামে একটা বড় কিছু হোক। সেটা সেতু হলে ভালো হয়। দাদু পদ্মা নদী নিয়ে বেশ কিছু গান লিখেছিলেন। আমি প্রস্তাব করবো নজরুলকে সম্মান জানিয়ে পদ্মা নদীর ওপর নির্মিত সেতুটি যেন তার নামে হয়। এর বাইরে আর কিছু চাইবো না। নজরুলের চেতনা ছড়িয়ে পড়ুক বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের অন্তরে। সবার মঙ্গল কামনা করছি।

আমাদের সময়

Leave a Reply