টঙ্গীবাড়ীতে সরকারী খাল দখল করে দোকানঘর নির্মান

panchgoan khalডি এম বেলায়েত শাহিন: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলার পাচঁগাঁও গ্রামে সরকারী খাল দখল করে দোকানঘর নির্মান কাজ চলছে। গত ৩ মাস পূর্বে এই খাল দখল শুরু হলে পাচঁগাঁও এলাকায় দুটি গ্র“প খাল দখল নিয়ে শক্তির মহড়ায় লিপ্ত হয়।

এ নিয়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে সেই সময় খাল দখল বন্ধ হয়ে যায়। পরে বিবাদমান গ্র“প দুটি এক হয়ে বিগত কয়েকদিন যাবৎ পূর্ণরায় খাল দখল করে দোকানঘর নির্মান কাজ চালিয়ে গেলেও এ্যাসিলেন্ড অফিস নিরব ভূমিকা পালন করছে। জানাগেছে, পাচঁগাওঁ গ্রামের খালেক মোল্লাগংরা ৩ মাস পূর্বে উক্ত খাল ভরাট কাজ শুরু করলে মনির দেওয়ানগংরা বাধা দেয়।

এ নিয়ে দুটি গ্র“প সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরে দফায় দফায় স্থাণীয় পর্যায়ে দুটি গ্র“প এনিয়ে আপোস মিমাংসার পরে পূর্ণরায় খাল ভরাট কাজ শুরু করে। গতকাল সোমবার সরোজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এক সময়ের প্রসৃদ্ধ টঙ্গীবাড়ী হতে পাচঁগাওঁ বাজার হয়ে হাসাইল পদ্মা নদীর সংযোগ খালটির পাচঁগাওঁ এলাকার অংশের বেশ কিছু স্থান ভরাট করে ফেলছে উক্ত ভূমি দশ্যূরা। পাচঁগাওঁ বাজার ভূমি অফিসের ১ শত গজের মধ্যে উক্ত ভরাট কাজ চললেও রহস্যজনক কারনে প্রশাসন নিরব ভূমিকা পালন করছে।

এছাড়া বালিগাঁও তালতলা খালের মধ্যে সারা বছর ড্রেজার বসিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন কাজ চলছে। স্থাণীয় সূত্রে জানাগেছে, এই খালে গতকাল সোমবার ৩টি ড্রেজার অবৈধভাবে মাটি উত্তোলন করছে। ফলে হুমকীর মুখে পড়েছে আশে-পাশের বেশ কিছু কৃষি জমি। এলাকাবাসী জানান, আমরা স্থাণীয় ভূমি অফিস ও এ্যাসিলেন্ড অফিসে বেশ কয়েকবার অভিযোগ করি। অভিযোগের পর কয়েকবার ভূমি কর্মকর্তারা পরিদর্শনে আসলে দু-একদিন কাজ বন্ধ থাকে তারপর আবার শুরু হয় মাটি কর্তন কাজ।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানাগেছে প্লট ভিত্তিক ভূমি কর্মকর্তাদের উৎকোচ দিয়েই সরকারী খালে এ সমস্ত ড্রেজারগুলো অবৈধভাবে মাটি কর্তন কাজ করছে। এ ব্যাপারে টঙ্গীবাড়ী সহকারী কমিশনার ভূমি রাহেলা রহমতুল্লাহ এর মোবাইলে সাংবাদিকরা ফোন করলে সে পরে কথা বলবে বলে লাইন কেটে দেয়। পরে টঙ্গীবাড়ীতে কর্মরত সাংবাদিকরা আরো একাধিকবার তার মোবাইলে ফোন করলে সে ফোন রিসিভ করে নাই।

এ ব্যাপারে টঙ্গীক্ষাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন পারভীন এর সাথে যোগাযোগ করা হলে সে জানায় আমি বিষয়টি দেখছি।
panchgoan khal

Leave a Reply